Skip to content

১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন তলা ভবনের নিচে

তিন তলা ভবনের নিচে,
শুয়েছিল এক অসহায় মানব।
পড়নে ছিল এক ছেড়া কাঁথা,
মুখে বকছিল সে যথা তথা।

আওলা চুলে ঘেরা ছিল তার মুখ,
আমি তিন তলায়,
জানালার পাশে বসিয়া, গুনছিলাম তার দু:খ। 

রাস্তার পাশে, ময়লার ঝোপে,
বেধেছে সে ছোট্ট ঘর।
বহু জন-মানব, ঘেঁসে চলে যায়,
সবাই যেন তার পর।

একটি রুটি হাতে,
চিবুচ্ছে সে তাতে,
চোখে তাহার অশ্রুর খনি,
আমি তিন তলায়, বসিয়া তাহার অশ্রুর ফুটা গুনি। 

হঠাৎ গাঁ টা শিউরে উঠে। 
দিনকাল কি তাহার, এভাবেই কাটে.??
তিন তলা ভবনের নিচে,
যুদ্ধ করিয়া এক মানবের জীবন বাঁচে।

আমি! তিন তলা থেকে,
খাবার নিয়ে সাথে
যাই তাহার কাছে। 
অশ্রুসিক্ত চোখে, তাকিয়েছিল সে,
আমার দুটি হাতে। 

এক দৌড়ে এসে, খাবার নিয়ে পাশে।
খাবার খায়, আর মুচকি মুচকি হাসে।
তিন তলা ভবনের নিচে,
স্তব্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে,
তাকিয়েছিলাম এক অসহায় মানবের দিকে।

এই সুখ যেন আর কোথাও নাই
সারা দুনিয়ায় যেখানেই যাই,
সবাই যদি ওদের, করিত ভরণ,
মরিলেও হাসিত ওরা, হাসিত ভুবন।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ