Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এবার শিক্ষায় একুশে পদক পাচ্ছেন মাহফুজা খানম

বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এবার দেশের ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিককে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে একুশে পদকে ভূষিত করছে সরকার। গত বৃহস্পতিবার সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব অসীম কুমার দে স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে তাঁদের নাম ঘোষণা করা হয়।

 

শিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য এবার শিক্ষায় একুশে পদক পাচ্ছেন শিক্ষিকা, শিক্ষাবিদ, নারীনেত্রী, সমাজসেবী, মুক্তিযোদ্ধা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি অধ্যাপক মাহফুজা খানম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম এবং একমাত্র নারী ভিপি তিনি।

 

১৯৪৬ সালের ১৪ এপ্রিল কলকাতায় মাহফুজা খানমের জন্ম । ১৯৬৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক এবং ১৯৬৭ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়ন থেকে মনোনয়ন পেয়ে ১৯৬৬-৬৭ মেয়াদে ডাকসুর ভিপি নির্বাচিত হন। ১৯৬৮ সালে লন্ডন সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পেলেও তৎকালীন মোনায়েম সরকার তাকে পাসপোর্ট দেয়নি। পরবর্তীতে সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের লেখাপড়ার সুযোগ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করছেন তিনি।

 

দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন সরকারি কলেজে শিক্ষকতায় নিযুক্ত থাকা অধ্যাপক মাহফুজা খানম এখন এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য।  এছাড়া খেলাঘরসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারপারসন এবং জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় ভূমিকা রেখে যুদ্ধাঙ্গনে সরাসরি যুদ্ধ করেছেন তিনি। নারীর শিক্ষা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ২০১২ সালে রোকেয়া পদক পেয়েছেন মাহফুজা খানম।

 

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ও বেসামরিক এই পদকপ্রাপ্তরা একটি সোনার পদক, সনদ ও দুই লাখ টাকার চেক পাবেন।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ