Skip to content

১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আজ জুহি চাওলা’র জন্মদিন

ভারতীয় অভিনেত্রী, মডেল, চলচ্চিত্র প্রযোজক এবং ১৯৮৪ সালের মিস ইন্ডিয়া সৌন্দর্যের বিজয়ী জুহি চাওলার আজ জন্মদিন। তিনি হিন্দি চলচ্চিত্রের পাশাপাশি বাংলা , পাঞ্জাবি , মালয়ালম , তামিল , কন্নড় ও তেলুগু ভাষার সিনেমায়ও কাজ করেছেন।

১৯৬৭ সালের ১৩ নভেম্বর ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের, আম্বালাতে জন্মগ্রহণ করেন। সেখানেই বেড়ে ওঠেন। তার বাবা ছিলেন ভারতীয় রাজস্ব পরিসেবা (আইআরএস) এর একজন কর্মকর্তা। তিনি মুম্বাইয়ের ফোর্ট কনভেন্ট স্কুল থেকে পড়াশোনা সম্পন্ন করেন। মুম্বাইয়ের সিদানহ্যাম কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৮৪ সালের মিস ইন্ডিয়া শিরোপা বিজয়ী ছিলেন।

জুহি চাওলার প্রথম অভিষেক সুলতানাত (১৯৮৬) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। কায়ামত সে কায়মাত তাক (১৯৮৮) এর মাধ্যমে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন, এই চলচ্চিত্রে জন্য তিনি বছরের সেরা লাক্স নিউ ফেসের জন্য ফিল্মফেয়ার পুরস্কার লাভ করেন। অত্যন্ত জনপ্রিয় পারিবারিক ড্রামার চলচ্চিত্র যেমন স্বরগ (১৯৯০), থ্রিলার ধরনের প্রাতিবাদ (১৯৯০), রোমান্টিক চলচ্চিত্র বোল রাধা বোল (১৯৯২) এবং রোমান্টিক কমেডি রাজু বান গেয়া জেন্টলম্যান (১৯৯২) প্রভৃতির মাধ্যমে তিনি হিন্দি চলচ্চিত্রের শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর তিনি ধারাবাহিকভাবে শীর্ষস্থানীয় চলচ্চিত্রগুলিতে অভিনয় করেন, যেমন অ্যাকশন থ্রিলার লুটেরে (১৯৯৩) তে মদের বারের নর্তকী হিসাবে, নিজের প্রেম বিসর্জনকারি নারী হিসাবে আশিনা (১৯৯৩) চলচ্চিত্রে, একজন দক্ষিণ ভারতীয় হিসাবে রোমান্টিক কমেডি হাম হেয় রহি পেয়ার কে (১৯৯৩), যার জন্য তিনি ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী পুরস্কার পেয়েছিলেন এবং রোমান্টিক থ্রিলার চলচ্চিত্র ডর (১৯৯৩) তে একজন ক্ষতিগ্রস্ত নারী হিসাবে।

এছাড়া, তিনি বক্স অফিসের সফলতা অর্জনকারী চলচ্চিত্র যেমন সাজান কে ঘার (১৯৯৪), নাওজায়াজ (১৯৯৫), রাম জানে (১৯৯৫), লোফার (১৯৯৬), মি। এবং মিসেস খিলাড়ী (১৯৯৭), দেওয়ানা মাস্তানা (১৯৯৭), ইয়েস বস (১৯৯৭), ইশক (১৯৯৭) এবং অর্জুন পণ্ডিত (১৯৯৯) এর মত চলচ্চিত্রে শক্তিশালী ভূমিকা পালন করেছেন।। ২১ শতকে, চাওলা আর্ট হাউস প্রকল্পগুলিতে স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সাথে কাজ শুরু করেন, ঝঙ্কার বিটস (২০০৩), ৩ দিওয়ারিন (২০০৩), মাই ব্রাদার… নিখিল (২০০৫), বাস এক পাল (২০০৬), আই এম (২০১১), গুলাব গ্যাং (২০১৪) এবং চক এন ডাস্টার (২০১৬) ইত্যাদি কাজের জন্য সমালোচদের কাছ থেকে উচ্চ প্রশংসাধ্বনি অর্জন করেন।

কায়ামত সে কায়মাত তাক সিনেমায় জুহি চাওলা রশ্মি চরিত্রে অভিনয় করেন। আমির খানের সঙ্গে জুটি বেধে সিনেমাটি ছিল সবার পছন্দের। ১৯৮৮ সালে কেয়ামত সে কেয়ামত তক দেশীয়ভাবে সংগ্রহ করে ৫ কোটি এবং ছিল ব্লকবাস্টার, যার ফলে এটি সে বছরের তৃতীয় সর্বোচ্চ-রোজগার করা চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটি তেলুগু হিসেবে আক্কাড়া আম্মায়ী ইক্কাড়া আব্বায়ী নামে তৈরি করা হয়। যাতে আত্মপ্রকাশ ঘটে তেলুগু মেগাস্টার চিরঞ্জীবীর ভাই পবন কল্যাণ এর। চলচ্চিত্রটির আরেকটি পুনঃনির্মান বাংলাদেশে কেয়ামত থেকে কেয়ামত নামে ১৯৯৩ সালে বের হয়। যাতে আত্মপ্রকাশ করেন বাংলাদেশের সালমান শাহ এবং মৌসুমী।

জুহি চাওলার সুপারহিট সিনেমাগুলোর একটি হলো রাজু বন গয়া জেন্টলম্যান। আজিজ মির্জার পরিচালনায় এই সিনেমায় জুহি চাওলা জুটি বেধেছিলেন শাহরুখ খানের সঙ্গে। ছবিটি মুক্তি দেয়া হয় জুহি চাওলার ২৫তম জন্মদিনে।

আজিজ মির্জার পরিচালনায় আরেকটি সিনেমায় জুহি চাওলা ও শাহরুখ খান জুটি বেধেছিলেন। সিনেমাটি হলো ইয়েস বস, যা ১৯৯৭ সালে মুক্তি পায়। এই সিনেমায় জুহি চাওলা শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী ক্যাটাগরিতে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পান।

অভিনয় জীবনে শাহরুখ খানের সঙ্গে জুটি বেধে ওয়ান টু কা ফোর (২০০১), ফির ভি দিল হ্যায় হিন্দুস্তানি (২০০০), রাম জানে (১৯৯৫) সিনেমাসহ নানা সিনেমায় অভিনয় করেছেন জুহি চাওলা। এছাড়াও আমির খান, গোবিন্দ, ঋষি কাপুরের সঙ্গেও করেছেন সুপারহিট সিনেমা।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ