Skip to content

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভেজাল ঘিউ

গ্রাম থেকে এক লোক শহরে  ঘিউ বেচতে যায়, প্রতিদিন সে শহরে ঘুরে ঘুরে ঘিউ বেচে। হঠাৎ এক দিন ঘিউ বেচে বাড়িতে আসার সময় মনে মনে চিন্তা করছে, হামি প্রতিদিন ওদের ভেজাল ঘিউ দেই কেউ কিছু কয় না। কারণ টা কি?

না হামি ওদের ভেজাল ঘিউ দেই খাইতে খাইতে অভ্যাস হয়ে গেছে। আচ্ছা ওদের একটু পরিখা করতে হবে, পরের দিন যায়া সবাই কে ভালো ঘিউ দিয়ে চলে আইলো।

পরের দিন আবার ঘিউ আলা ঘিউ নিয়ে শহরে গেলো, যেই চিল্লানি দিছে কেবল ঘিউ নিমেন ঘিউ আর কোনটে থাকেন শহরের মোটা মোটা মহিলা গুলো লম্বা লম্বা ঝাড়ু নিয়ে হাজির, এই বেটা কালকে কি ঘিউ দিচ্ছোস, সবার পেট খারাপ হইচে আর সারা রাত ছোট ঘরে দৌড়াদৌড়ি করে রাত গেচে।

ঘিউ আলা তো শুনে অবাক দিলাম ভালো ঘিউ হয়ে গেলো ভেজাল, এবার বুজি সত্য কতা কওন লাগবো, নইলে কপালে ঝাড়ু পিটনি লেখা আচে। আচ্ছা শুনেন আপারা শুনেন সত্য ঘটনা আগে শুনেন,

হামি এর আগে প্রতিদিন ভেজাল ঘিউ দিতাম,আপনারা তো কেও কিচ্ছু কন না মোক, তা মনে মনে ভাবলাম দিন দিন ভেজাল খাওয়াই তা একদিন একটু ভালো ঘিউ দেই  সেই জন্য কালকে ভালো ঘিউ দিচিলাম, তা যাক আনাদের যহন ভালু ঘিউ খায়া পেট নষ্ট হইচে, তো কাল থেকে ভেজাল ঘিউ দিয়ে যামু,আনাদের পেটে ভালো জিনিস সয্য হবে না। আনারা ভালো জিনিস হজম করতে পারতেন না। ভেজাল খাইতে খাইতে অভ্যাস হইচে ভালো জিনিস কি আর হজম হয়!