Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অদ্ভুত পানীয় হাবুসু!

আমাদের উৎসব কিংবা পারিবারিক মিলনমেলা গুলোতে আমরা পানীয় পান করে থাকি। বিভিন্ন আচার কিংবা রীতিতে তারা পানীয় উৎসব পালন করে। তেমনেই একটি উৎসব পালন করে জার্মানবাসীরা। তার বিয়ার উৎসব পালন করে। কিন্তু জাপানে সাপ ব্যবহার করে একটি উপাদেয় পানীয় তৈরি করে।

 

হাবুসু নামের এই পানীয়টি সাপ ব্যবহার করেই তৈরি করা হয়। এটি Okinawan Snake Wine নামেও পরিচিত। এই বিখ্যাত পানীয় তৈরির মূল উপাদান হচ্ছে সাপ। পানীয়টি গাঢ় হলুদ রঙের যা চালের গুড়া, হার্বস, মধু দিয়ে তৈরি করা হয়।

 

বোতলে এই মিশ্রণের মাঝে আস্ত পিট ভাইপার সাপ ছেড়ে দেওয়া হয়৷ পানীয় তে থাকা এলকোহলে সাপের বিষ দ্রবীভূত হয়ে নির্বিষ হয়ে যায়। সাপকে কয়েক মাস বোতলে সংরক্ষণের ক্ষেত্রে সাপের নাড়িভুঁড়ি বের করে ফেলা হয়, এতে পানীয়তে বাজে গন্ধ হয়না।

 

অনেকে হাবুসু বাজারজাত করার আগে বোতল থেকে সাপ বের করে নেয়, আবার অনেকে সাপ বোতলে রেখেই বিক্রি করেন। ভাইপার সাপ প্রায় এক বছর না খেয়ে সুস্থভাবে থাকতে পারে এবং ২৬ ঘণ্টা একটানা সঙ্গম করতে পারে।

 

পান করলে পুরুষের যৌন অক্ষমতা দূর হয়, যৌন ক্ষমতা ও শারীরিক শক্তি বৃদ্ধি পায়। তবে এটি প্রমাণিত নয়। হাবুসু পানের ফলে বমি বমি ভাব হতে পারে। জাপান ছাড়াও এখন এই পানীয় চীন, ফিলিপাইনস, দক্ষিণ কোরিয়াতে জনপ্রিয়।

 

জাতিভেদে বিভিন্ন পছন্দের পানীয় বিভিন্ন জাতি পান করে আসছে। জাপানের কিছু বিরল পানীয় আছে যেগুলো কিনা চমকে দিতে পারে সারা বিশ্বকে। কল্পনা করুনতো আপনার সামনে একটি বোতালজাত অবস্থায় ভাইপার সাপের পানীয় দেওয়া হল! নিঃসন্দেহে অভিজ্ঞতাটি রোমাঞ্চকর হবে।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ