Skip to content

২১শে মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুরিয়ার সার্ভিস উৎসবে ভিন্ন মাত্রা দেয়

উৎসব আনন্দে আমরা প্রিয়জনকে নানা উপহার দিয়ে উৎসবটা রাঙ্গাতে চাই। এরমধ্যে সবচেয়ে ব্যতিক্রম কাজ করে আনন্দ পাই প্রায় প্রত্যেকে, সেটা সারপ্রাইজ দেওয়া।

সারপ্রাইজ উপহার পাঠানোর মাধ্যমে প্রিয়জনকে নিজের উপস্থিতি অনুভব করানোর ধারা দীর্ঘদিন ধরেই সারাপৃথিবীতেই প্রচলিত। এই সারপ্রাইজটা সঠিকভাবে উষ্ণতার মাধ্যমে প্রিয়জনের কাছে পৌঁছানোর কাজটা করেন কুরিয়ার সার্ভিস সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। বাংলাদেশেও যেকোনো উৎসবে কুরিয়ার সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর চাপ বাড়ে অনেক। প্রচুর অর্ডার পড়ে, অল্পসময়ে তা ডেলিভারী দিতে নাভিশ্বাস চাপ নেয় কুরিয়ার প্রতিষ্ঠানগুলো।নিজেদের উৎসব আনন্দকে দূরে রেখে প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ করে আপনার আমার সারপ্রাইজটাকে উৎসবে রুপান্তর করতে।

এরকমই একটা প্রেক্ষাপটে কথা হয় রাত্রিস ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড এর কর্নধার আফসানা রাত্রি মিশুর সাথে। তিনি বলেন, "আসলে আমাদের যে সেল হয় সেটা সময়মত মানুষের কাছে সঠিকভাবে পোঁছানোর কাজ যারা করেন তাদের প্রতি আমার আস্থা ভরসা অনেক। কি কষ্টটাই না তারা করেন বিভিন্ন উৎসবে, বিশেষ করে ভ্যালেন্টাইনস ডে কিংবা ঈদের মত বড় উৎসবে।"

কথা হলো কুরিয়ার সেবাদানকারী একটি বড় প্রতিষ্ঠান প্রভাতী কুরিয়ার লিমিটেডের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিওও সৈয়দ উছওয়াত ইমামের সঙ্গে, তিনি জানালেন – "আমরা , আমাদের ডেলিভারি হিরোরা এবং পুরো অপারেশনস টিম এই বসন্তের ভালোবাসা দিবসেও প্রচুর কাজের চাপে ছিলাম এবং এখনো চলছে পুরোদমে কাজ। আমাদের কাজের ধরণটাই এমন যে আপনার হাসিমুখ দেখার জন্যই কাজ করি আমরা কুরিয়ার কোম্পানীগুলো। আপনার স্পর্শটা ঠিকমত আরেক ঠিকানায় পৌঁছানোতে যুক্ত হতে পেরে আমরাও বেশ আনন্দ পাই।"

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ