চট জলদি সুস্বাদু পাটিসাপটা পিঠা

চট জলদি সুস্বাদু পাটিসাপটা পিঠা
চট জলদি সুস্বাদু পাটিসাপটা পিঠা
পুরটা বানানোর জন্য এক লিটার পরিমাণ দুধ নিতে হবে। দুধটা ভালো ভাবে জ্বাল করার পর এর মধ্যে দুটো এলাচ এবং হাফ কাপ পরিমাণ গুড় ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।গুড়টা ভালো ভাবে মিশে গেলে এরমধ্যে দুই টেবিল চামচ চালের গুঁড়া দিতে হবে এবং ভালো ভাবে নাড়াতে হবে। মিশ্রণটি যখন অর্ধেকের ও কম হয়ে যাবে তখন চুলা থেকে নামিয়ে ফেলতে হবে।

চলছে  শীতকাল। আর শীতকাল মানেই হরেক রকম পিঠার উৎসব। শীতের সকালে পিঠা না খেলে শীতকাল যেন পূর্ণতায় পায় না। আর তাই শীতকাল আসলেই শহরের অলিতে গলিতে দেখা যায় ভ্রাম্যমাণ পিঠ বিক্রেতাদের। কিন্তু বাড়িতে তৈরী পিঠার স্বাদ একেবারে আলাদা। তাই আজকে থাকছে পাটিসাপটা পিঠা তৈরীর রেসিপি।

 

 

উপকরণ

 

 

চালের গুঁড়া ১ কাপ

ময়দা হাফ কাপ

লবণ হাফ চা চামচ

চিনি ২ টেবিল চামচ

গুড় হাফ কাপ

 

 


পুর

 


দুধ ১ লিটার

এলাচ ২টি

গুড় হাফ কাপ

চালের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ

তেল পরিমাণ মতো

 

 

 

প্রস্তুত প্রণালী 

 

 

 

মিশ্রণ


প্রথমে একটি পাত্রে এককাপ পরিমাণ চালের গুঁড়া, ময়দা হাফ কাপ, লবণ হাফ চা চামচ, চিনি দুই টেবিল চামচ এবং গুড় হাফ কাপ (গুড় টাকে আগে থেকে পানি দিয়ে জ্বাল করে গলিয়ে নিতে হবে) সবগুলো উপকরণ দেড় কাপ পানি দিয়ে একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে। এমন ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে যাতে মিশ্রণটি বেশি পাতলা বা ঘন না হয়ে যায়। 

 

পুর বা ক্ষীরসা

 

পুরটা বানানোর জন্য এক লিটার পরিমাণ দুধ নিতে হবে। দুধটা ভালো ভাবে জ্বাল করার পর এর মধ্যে দুটো এলাচ এবং হাফ কাপ পরিমাণ গুড় ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।গুড়টা ভালো ভাবে মিশে গেলে এরমধ্যে দুই টেবিল চামচ চালের গুঁড়া দিতে হবে এবং ভালো ভাবে নাড়াতে হবে। মিশ্রণটি যখন অর্ধেকের ও কম হয়ে যাবে তখন চুলা থেকে নামিয়ে ফেলতে হবে।

 

এখন চুলায় একটি প্যানে মিডিয়াম আঁচে বসাতে হবে। অল্প পরিমাণ তেল নিয়ে প্যানে ভালো ভাবে ব্রাশ করে নিতে হবে। প্রথমে তৈরি করে রাখা মিশ্রণটি একটা বড় চামুচের সাহায্যে তুলে প্যানে দিতে হবে। মিশ্রণটি দেওয়ার সাথে সাথে প্যানটাকে ঘুরিয়ে পাতলা করে প্যানে ছড়িয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ পর যখন পিঠার রং পরিবর্তন হয়ে গেলে তখন পিঠার এক পাশে পুর বা ক্ষীরসা কিছুটা পরিমাণ দিয়ে দিতে হবে এবং আস্তে আস্তে কয়েকবার উল্টিয়ে দিতে হবে। এরপর নামিয়ে পাত্রে রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা অথবা গরম পরিবেশন করুন মজাদার পাটিসাপটা পিঠা।