Skip to content

২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে ‘হলুদ কফি’!

রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে বা সারা দিনে সকল কর্মব্যস্ততার মাঝেও চাই এক কাপ গরম গরম কফি। এতে শরীর ও মন ফুরফুরে মেজাজে থাকে। যাদের সকাল শুরু হয় এক কাপ কফি দিয়ে তারা অনেকটা কফি লাভার হয়ে থাকে। অনেকে দুধ, চিনি দিয়ে কফি পান করতে পছন্দ করেন, তো অনেকে ব্ল্যাক কফি খেতে পছন্দ করেন, আবার কেউ কেউ তো বিভিন্ন চকলেট, ক্রিম ইত্যাদি মজাদার খাবার মিশিয়ে কফি পান করতে পছন্দ করেন।

 

দুধ, চিনি দেওয়া কফি শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। যা শরীরে ক্যালোরির পরিমাণ বাড়িয়ে শরীরকে ফ্যাট হতে সাহায্য করে থাকে। অন্যদিকে যারা চিনি, দুধ ছাড়া কফি পান করেন তারা শারীরিকভাবে যেমন সুস্থ থাকেন তেমনি বয়সের তুলনায় অনেক বেশি ফিট । 

 

ব্ল্যাক কফিতে অনেক উপকার পাওয়া যায় যা দুধ, চিনি দেওয়া কফি তে নেই। কিন্তু এই যারা  স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে নিয়মিত ব্ল্যাক কফি পান করছেন, তারা কি কখনো এই ব্ল্যাক কফিতে অন্য কোন ঘরোয়া উপকরণ বা মসলা ব্যবহার করে পান করে দেখেছেন? 

 

শরীরের জন্য ব্ল্যাক কফির গুনাগুণ সম্পর্কে অনেকেরই জানা আছে। কিন্তু আপনি যদি আপনার রান্না ঘরে থাকা হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ এই ব্ল্যাক কফিতে মিশিয়ে পান করেন, তাহলে আপনার স্বাস্থ্য আরও বেশি ভালো থাকবে সেই সাথে বিভিন্ন রোগ-বালাই থেকেও শরীর থাকবে মুক্ত।

 

হলুদের গুণাবলি কারো অজানা নয়। বিভিন্ন রোগ মুক্তির ক্ষেত্রে এর কাজ দারুণ। ত্বকের সমস্যা, শরীরের যে কোনো সমস্যা দূর করতে সক্ষম এই হলুদ। যারা ত্বক কে উজ্জ্বল, দাগহীন, পরিষ্কার রাখতে চান তারা খেতে পারেন নিয়মিত এই হলুদ কফি। এছাড়াও এটি অতিরিক্ত ক্যালরি ধ্বংস করে, শরীরকে ফিট রাখতে সহায়তা করে, মানসিক প্রশান্তি বাড়ায়, শরীরের জ্বালাপোড়া, বিষ-ব্যথা দূর করতেও সাহায্য করে এই হলুদ কফি।

 

যে ভাবে তৈরি করবেন

 

পানি ভালো ভাবে ফুটিয়ে নিয়ে কফি কাপে ঢেলে নিন। এবার এতে এক চা-চামচ কফি ও আধা চা-চামচ হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে নিন। তবে মাথায় রাখতে হবে কোনো ধরনের কোনো মিষ্টি ব্যবহার করা যাবে না। ব্যস হয়ে গেলো  স্বাস্থ্যকর 'হলুদ কফি'। তারুণ্য ধরে রাখতে এবং রোগব্যাধি থেকে মুক্ত থাকতে নিয়মিত পান করুন এই 'হলুদ কফি'।