Skip to content

১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ত্বকের যত্নে দুধ

দুধ শুধু আমাদের শরীর ও স্বাস্থ্যের জন্যই উপকারি নয়, বরং ত্বকের যত্নেও বেশ উপকারি। চিকিৎসকদের মতে, রাতে এক গ্লাস দুধ খেয়ে শুলে ভাল ঘুম হয়। একই সঙ্গে ত্বক কোমল ও উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। নাস্তা তে দুধ খেতে পারেন। যারা সকালে জিম বা শরীরচর্চা করেন, তাদের জন্য নাস্তায় দুধ অপরিহার্য।

দুধে রয়েছে ভিটামিন-এ, ভিটামিন-ডি, যা ত্বকে নতুন কোষ গঠনে সহায়তার পাশাপাশি ত্বকের ইলাস্টিসিটি বাড়িয়ে ত্বককে করে দাগমুক্ত আর প্রাণবন্ত। এ ছাড়া, দুধে থাকা ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, সেলেনিয়াম ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখার পাশাপাশি পোড়া দাগও দূর করতে সাহায্য করে।

 

 

১। শুষ্ক ত্বকের সমস্যায় দুধ অত্যন্ত কার্যকারী উপাদান। যাদের ত্বকের অনেক বেশি রুক্ষ ও শুষ্ক, তারা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১ কাপ দুধের সঙ্গে একটা কলা মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এই প্যাক ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। তারপর আপনার পছন্দের ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে উঠে নিজের নরম, কোমল আর দীপ্তিময় ত্বক দেখে নিজেই অবাক হয়ে যাবেন।

 

২। ত্বকে টান অনুভূত হচ্ছে, তাহলে আধা কাপ দুধের সঙ্গে সমপরিমাণ গ্রিনটি মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণ তুলোয় ভিজিয়ে আলতো করে সমস্ত মুখে মাখিয়ে নিন। তারপর ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন গোসলের আগে এই পদ্ধতি মেনে চললে দ্রুত ত্বকের টান ঠিক হয়ে যাবে।

 

৩। চালের গুঁড়োর সঙ্গে দুধ আর মধু মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে নিন। সপ্তাহে কমপক্ষে ২-৩ দিন এটা দিয়ে ত্বকে চারিদিকে ম্যাসাজ করে স্ক্রাবিং করে নিন ১০ মিনিটের জন্য। ত্বকের ডেডসেলস গুলোকে দূর করে ত্বকে আরও বেশি উজ্জ্বল আর প্রাণবন্ত দেখাতে সাহায্য করবে।

 

৪। ক্লিনজার হিসেবে দুধ অত্যন্ত কার্যকারী একটি উপাদান। দুধে তুলো ভিজিয়ে আলতো করে সমস্ত মুখে মাখিয়ে নিন। ১০ মিনিট পর আঙুলের দিয়ে হালকা করে মালিশ করে, তা উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। উপকার পাবেন।   

 

৫। ময়লা জমে কিংবা রোদে পুড়ে গায়ের রং নষ্ট হয়ে গেলে। ২ চা চামচ দুধে ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পুরো মুখে, গলায়, হাতে, পায়ে লাগিয়ে আধঘণ্টার জন্য রেখে দিন। পরে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এর ফলে ত্বকের রঙে সামঞ্জস্যতা আসবে এবং উজ্জ্বল হবে। 

 

৬। দাগমুক্ত উজ্জ্বল ত্বক পেতে ৫/৬টা কাঠবাদাম আর দুধ ব্লেন্ড করে বা বেটে পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর মুখে অ্যাপ্লাই করুন, ৩০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। একদিন পরপর ব্যবহারে ধীরে ধীরে ত্বকের দাগ নির্মূল হয়ে উজ্জ্বল দীপ্তিময় ত্বকের দেখা পাবেন।

 

৭। পায়ের গোড়ালির ত্বক রুক্ষ আর শক্ত তাহলে একটি বড় পাত্রে হালকা উষ্ণ দুধ ও পানি মিশিয়ে তার মধ্যে পা ডুবিয়ে ১৫-২০ মিনিট বসে থাকুন। তারপর হালকা করে ঘষে নিন। দেখবেন পায়ের গোড়ালি নরম আর পরিষ্কার হয়ে যাবে।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ