Skip to content

২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | সোমবার | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এক গৃহিণীর বডিবিল্ডার হয়ে ওঠার গল্প! 

৪৫ বছর বয়সের কিরণ ডেম্বলা ভারতের একজন খ্যাতনামা বডি বিল্ডার। কিন্তু কিছুদিন আগেও তিনি ছিলেন গৃহিনী এবং বডি বিল্ডিং এ আসার কোন পরিকল্পনাও ছিলোনা তার। একটি রোগ তার জীবনের এই মোড় বদলাতে ভূমিকা রাখে।

 

কিরণ ডেম্বলার বাড়ি ভারতের হায়দ্রাবাদে। ৩৩ বছর বয়সে হঠাৎ তার মস্তিষ্কে জমাট বাঁধা রক্তের অস্তিত্ব মেলে। দুই বছরের চিকিৎসায় শারীরিক ওই সমস্যাটি থেকে সেরে উঠলেও কড়া ওষুধের কারণে দেহের ওজন অনেক বেড়ে যায়। স্বাস্থ্য নিয়ে আতঙ্ক, তাকে জীবন নিয়ে নতুন করে ভাবিয়ে তোলে। এরপর তিনি বাড়ির কাছে একটা ব্যায়ামাগারে ভর্তি হন। সাত মাসে ২৪ কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেন। আট মাসে তিনি সিক্স প্যাক, বাইসেপ এবং শোল্ডারসহ পেটানো পেশীবহুল একটি শরীরের মালিক হন। তারপর তিনি একজন প্রশিক্ষক হন। 

 

২০১৩ সালে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে কিরণ ষষ্ঠ স্থান অধিকার করেন এবং ‘সবচেয়ে সুন্দর দেহ’ খেতাব পান।  এরপর তিনি তারকাদের প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করেন। যে কোন সফল বডিবিল্ডারের মতো তিনিও গর্বের সঙ্গে দেখাতে পারেন তার তলপেটের পেটানো 'সিক্স প্যাক' পেশি।