Skip to content

২২ মে, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফ্যাশন দুনিয়ায় বল প্রিন্টের রাজত্ব!

ফ্যাশন দুনিয়ায় বল প্রিন্টের রাজত্ব!

যুগ যুগ ধরে ফ্যাশন দুনিয়ায় নানান পরিবর্তন আসলেও ফ্যাশন দুনিয়ায় বল প্রিন্ট যেনো বহাল তবিয়তে রাজত্ব করছে। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ফ্যাশনের আবির্ভাব ঘটে আবার তা এক মৌসুম পরে হারিয়েও যায়৷ তবে বল প্রিন্ট ফ্যাশন দুনিয়ায় অস্তিত্ব বজায় রেখেছে যুগের পর যুগ ধরে।

১৯২০ সালে ফ্যাশন দুনিয়ায় আসে বল প্রিন্টের পোশাক। ডিজনির মিকি মাউস তখন লাল রঙা পলকা ডটসের পোশাক পরত। তখন থেকেই চল শুরু হয় বল প্রিন্ট পোশাকের। বিভিন্ন সময়ে এ প্রিন্ট ফিরে এসেছে ফ্যাশন ট্রেন্ড হয়ে। ১৯৭০ সাল থেকে হিন্দি ছবিতেও নায়ক-নায়িকার শরীরে শোভা পেতে থাকে বল প্রিন্টের পোশাক। এরপর থেকেই ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে চলে যায় বল প্রিন্ট।

১৯৭৩ সালে মুক্তি পায় ‘ববি’ সিনেমা। ‘ববি’ সিনেমায় ডিম্পল কাবাডিয়ার দুর্দান্ত অভিনয় মন কাড়ে দর্শকদের। কিন্তু শুধু তার অভিনয়ই নয়। ববি সিনেমায় ডিম্পলের লুক দেখে মুগ্ধ হয়েছিল দর্শকরা। তখন ডিম্পলের পোশাকে ছিলো বল প্রিন্টের ছোঁয়া। সিনেমায় পলকা ডটস প্রিন্টেড শার্ট পরেছিলেন ডিম্পল। তখনকার সময়ে ভারতের ফ্যাশন অঙ্গনে ঝড় তুলে তার স্টাইল। তবে দুএকবছরের মধ্যেই অন্যসব ফ্যাশনের মতো বল প্রিন্ট ভ্যানিশ হয়ে যায়নি।

২০১৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘ঘনচক্কর’ ছবির কথাই ধরা যাক। ছবিটির কাহিনী ছিলো ফ্যাশন নিয়ে । ছবিতে অভিনয় করেন ইমরান হাশমি ও বিদ্যা বালান। ফ্যাশন নিয়ে নির্মিত এ ছবিতেও নায়ক-নায়িকা দু’জনকেই পলকা ডটের পোশাক পরতে দেখা যায়। তাতে বোঝাই যাচ্ছে বল প্রিন্ট ফ্যাশন দুনিয়ায় ঠিক কতটা ঘাঁটি গেড়ে বসেছে।

বলিউড নায়ক-নায়িকাদের ফ্যাশন বরাবরই বেশ চর্চায় থাকে। তারা কোন ধরনের পোশাক, জুতা ব্যবহার করছেন, কোন হেয়ার-স্টাইল করছেন, কার ফ্যাশনে কতটা ভিন্নতা এলো বছর জুড়ে এসব কিছু নিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলোও থাকে সোচ্চার। ২০২১ সাল জুড়ে বলিউডের ফ্যাশন কুইনরা মেতে উঠছিলেন বলপ্রিন্টে। কারিশমা কাপুর থেকে শুরু করে সোনম কাপুর, দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, কারিনা কাপুর, আনুশকা শর্মা, আলিয়া ভাট, ভূমি পেডনেকার এর মতো ফ্যাশন সচেতন এসব বলিকুইনদের সবাইকে বল প্রিন্টের পোশাক পরতে দেখা গেছে।

২০২১ এর মাঝামাঝি সময় নিজের বেবি পাম্প সামনে আনেন বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা৷ সেই ছবিতে তার সৌন্দর্য প্রশংসা করতে ভোলেননি নেটিজেনরা। তখনকার সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচুর শেয়ার ও ইতিবাচক মন্তব্য পেয়েছিলেন৷ সেই ছবিতে তার পরনে ছিলো কালোর উপর সাদা বল প্রিন্টের পোশাক।

সোনম কাপুরকে সাদার ওপরে কালো পলকা ডটসের একটি হাফ স্লিভ শর্ট টপস পরতে দেখা গেছে। সাথে তার পরনে ছিল একটি কালো রঙের প্যান্ট। আবার বলিউড ও হলিউড কাঁপানো অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে দেখা গেছে বল প্রিন্টের শাড়িতেও৷ দীপিকা পাড়ুকোনকে দেখা গেছে সাদার উপর কালো বল প্রিন্টের গাউনে। আলিয়া ভাটকেও দেখা গিয়েছে একই ধাঁচের পোশাকে৷

এছাড়াও শিল্পা শেট্টি, সারা আলি খানসহ অনেক নামি-দামি তারকারা বলপ্রিন্টের পোশাকে সেজেছেন। অভিনেত্রীদের পাশাপাশি অভিনেতারাও তাদের পোশাকে এনেছেন বল প্রিন্টের ছোঁয়া। বলিউড অভিনেতা রনভীর সিংয়ের ফ্যাশন নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। কিছুদিন আগে তিনিও সেজেছিলেন বল প্রিন্টের ফ্যাশনে। বলপ্রিন্টের শার্ট, মাথায় বলপ্রিন্টের ক্যাপ সাথে একটি স্কার্ফ তাও বল প্রিন্টের। এমনকি বলিউড ভাইজান সালমান খানকেও বল প্রিন্টের পোশাক পরতে দেখা গিয়েছে।

এসব নামকরা তারকারা একের পর এক নিজেদের পোশাকে বল প্রিন্টের ছোঁয়া রেখে প্রমাণ করছেন, ফ্যাশন দুনিয়ায় বল প্রিন্টের রাজত্ব শেষ হতে এখনো বহু দেরী। বল প্রিন্টের শত বছরের ইতিহাস এতো সহজে শেষ হবার নয়।