Skip to content

১১ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ২৭শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যেভাবে সংরক্ষণ করলে দীর্ঘদিন পেঁয়াজ ভালো থাকবে

পেঁয়াজ ছাড়া রান্নার কথা ভাবাই যায় না। খাবারে স্বাদ বাড়াতে পেঁয়াজের জুড়ি নেই। অনেকেরই আবার খাবারের সঙ্গে কাঁচা পেঁয়াজ খাওয়ারও অভ্যাস আছে। শীতকালে বাজারে প্রচুর নতুন পেঁয়াজ পাওয়া যায়। এজন্য কেউ কেউ বাড়িতে একবারে কয়েক কেজি পেঁয়াজ মজুত রাখেন। পেঁয়াজ পচনশীল সবজি। তাই বাড়িতে পেঁয়াজ মজুত করে রাখার কয়েকদিন পরেই পেঁয়াজের ঝাঁঝ চলে যায় কিংবা পচন ধরতে শুরু করে। পেঁয়াজ সংরক্ষণের সেরা উপায় জানা থাকলে মাস খানেক ভালো রাখা সম্ভব।

শুকনো জায়াগায় রাখুন
পেঁয়াজ সংরক্ষণের জন্য ঠাণ্ডা ও শুষ্ক জায়গা বেছে নেওয়াই ভালো। অন্ধকার নয়, আলো-বাতাস চলাচল করে, এমন জায়গায় ছড়িয়ে রাখতে পারলে পেঁয়াজ ভালো থাকে। বাজার থেকে পেঁয়াজ কিনে আনার পর প্লাস্টিকের প্যাকেটে ভরে রেখে দেবেন না। খবরের কাগজ বা পাটের বস্তায় রাখলে পেঁয়াজ দীর্ঘ দিন ভালো থাকবে। এছাড়াও ঝুড়ি, বাঁশের পাত্রে পেঁয়াজ সংরক্ষণ করতে পারেন।

ফ্রিজে রাখতে পারেন

পেঁয়াজ দীর্ঘ দিন ভালো রাখতে ফ্রিজে রাখুন। কিন্তু ফ্রিজের অন্যান্য খাবারে গন্ধ হয়ে যাওয়ার ভয়ে অনেকেই ফ্রিজে পেঁয়াজ রাখতে চান না। অনেকের ফ্রিজে আলাদা জায়গা থাকে পেঁয়াজ রাখার জন্য। সেখানে রাখতে পারেন। সেক্ষেত্রে পেঁয়াজ বেটে বা ব্লেন্ড করে রাখুন। ভুলেও অন্য শাকসবজির সঙ্গে পেঁয়াজ রাখবেন না। বড় জিপলক পাউচে ভরেও পেঁয়াজ রাখতে পারেন।

বেরেস্তা করে রাখুন
পচন ধরা দেখলে সেই পেঁয়াজগুলো আলাদা করে নিন। এরপর খোসা ছাড়িয়ে খারাপ অংশটুকু ফেলে বাকিটা লম্বা লম্বা কুচি করে কেটে নিন। এবার ডুবো তেলে লাল করে ভেজে টিস্যু পেপারে তুলে রাখুন। তেল শুকিয়ে গেলে একটি পাত্রে ভরে ঠাণ্ডা করে নিন। ভেজে রাখা বেরেস্তা ফ্রিজে তুলে রাখুন। রান্নায় বেরেস্তা ব্যবহার করলে স্বাদ বেড়ে যায় কয়েক গুণ।

নাইলনের ব্যাগে রেখে ঝুলিয়ে রাখুন
নাইলনের কাপড়ের মধ্যে প্রতিটি পেঁয়াজ আলাদা করে ঢুকিয়ে বেঁধে ঝুলিয়ে রাখুন। এতে করে পেঁয়াজগুলো প্রায় ৮ মাস পর্যন্ত ভালো থাকবে। কারণ বাতাস পাওয়ায় এবং গাদাগাদি করে না রাখায়, পেঁয়াজের পচন এড়ানো যাবে।

আচার করে রাখুন
আমরা আম, জলপাই, লেবু, রসুন বা মরিচের আচার বানিয়ে সংরক্ষণ করে থাকি। পেঁয়াজের আচার কথাটি নতুন মনে হতে পারে! কিন্তু পেঁয়াজ দীর্ঘদিন ভালো রাখতে আচার করে সংরক্ষণ করতে পারেন।

অনন্যা/নুপুর/

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ