Skip to content

২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শৌচাগারে প্যাড ভেন্ডিং মেশিন বসানো অঙ্গিকার ঋতাভরীর

কলকাতা শহরের প্রত্যেকটি শৌচাগারে নারীদের জন্য প্যাড ভেন্ডিং মেশিন বসানোর অঙ্গীকার করেছেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী।  গত ২৮ তারিখ 'বিশ্ব মাসিক স্বাস্থ্য দিবস' উপলক্ষে এই কথা জানান তিনি। 

 

ঋতুস্রাব কোন অসুস্থতা বা অপবিত্রতা নয়, বরং একটি সাধারণ প্রাকৃতিক বিষয়। ঋতুস্রাব নিয়ে সমাজে চলে আসা বিভিন্ন ট্যাবুর বিরুদ্ধে সচেতনতা নিয়ে ঋতাভরী গত বছর 'বহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' সিনেমাটি করেন। সিনেমাটি দর্শক মনে বেশ সাড়াও ফেলেছিল। 

 

শৌচাগারে প্যাড ভেন্ডিং মেশিন বসানো অঙ্গিকার ঋতাভরীর

 

নারীদেহ পবিত্র নয়। আর তাই নারীরা পবিত্র স্থানে যেতে পারবে না। এমন ট্যাবু আমাদের সমাজে বহুকালের। ঋতুস্রাব নিয়ে আমাদের সমাজে প্রচলিত এসব কুসংস্কার এবং অজ্ঞতা দূর করতেই তখন থেকে সচেতনতার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন ঋতাভরী। ছবিটি মুক্তির ঠিক আগেই মৌন মিছিলও করেছিলেন।  

 

তিনি মনে করেন এই একবিংশ শতাব্দীতে এসে ঋতুচক্র গোপন করার মত কোন বিষয় নয়। বরং সহজ সাবলীল ভাবেই এ বিষয়ে এখন আলোচনা হওয়া উচিত৷ 

 

শৌচাগারে প্যাড ভেন্ডিং মেশিন বসানো অঙ্গিকার ঋতাভরীর

 

এ বিষয়কে নিত্য স্বাভাবিক জীবনের অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতেই অভিনেত্রীর এমন উদ্যোগ। তিনি স্বপ্ন দেখেন কলকাতার প্রতিটা সাধারণ শৌচাগারে স্যানিটারি ন্যাপকিন থাকবে। যেন নারীরা রাস্তাঘাটে দরকার পড়লেই প্যাড নিতে পারেন বিনামূল্যে।  

 

ইতোমধ্যে পরিকল্পনা অনুযায়ী তিনি শহরের প্রায় একশোটা শৌচাগারে প্যাড ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে। শেষ না হওয়া পর্বে তিনি এ কাজ অব্যাহত রাখবেন বলে জানান। এবং এ কাজের অর্থায়নে পুরুষরাই বেশি এগিয়ে এসেছে বলে জানান তিনি। 

 

অভিনেত্রীর মতে পাঠ্যবইয়েও ঋতুচক্র নিয়ে অধ্যায় রাখা উচিত। এতে সচেতনতা বাড়বে। কেননা এখনো গ্রামের মহিলারা এবিষয়ে সচেতন নয়। ফলে তারা নানা শারীরিক জটিলতার সম্মুখীন হোন।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ