Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

উদ্যোক্তার গল্প: এগিয়ে যাওয়া চ্যালেঞ্জিং তারপরও বাধা পেরুতে হবে!

পাক্ষিক অনন্যার সাপ্তাহিক লাইভ উদ্যোক্তার গল্প অনুষ্ঠানে দেশের পরিশ্রমী ও সফল উদ্যোক্তাদের গল্প আমাদের সামনে তুলে ধরা হয়। প্রিতম সাহার সঞ্চালনায় আজকের উদ্যোক্তার গল্প অনুষ্ঠানের অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আনান’স ক্যারাভানের সত্ত্বাধিকারী সৈয়দা লুৎফুন নাহার ও পরিধান শৈলীর রাকিমুন জয়া। অনুষ্ঠানের স্পন্সরে ছিল বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় চামড়া প্রক্রিয়াজাত প্রতিষ্ঠান এসএসবি লেদার। 
অনুষ্ঠানের শুরুতে নতুন বছর নিয়ে সৈয়দা লুৎফুন নাহার বলেন, “ইনশাল্লাহ স্বপ্ন আছে উদ্যোগকে নিয়ে অনেক দূর এগিয়ে যাওয়ার এবং নিজেকে সফল উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার।”

আনান’স ক্যারাভান নিয়ে তিনি বলেন, “করোনার মধ্যেই যাত্রা শুরু হয় আনান’স ক্যারাভানের। আমাদের পুরো ব্যবসাটা হচ্ছে ফেসবুক ভিত্তিক। তাই করোনার কারণে আমরা কাস্টমারদের সাথে ব্যক্তিগতভাবে দেখা করতে ও ফিডব্যাক নিতে পারছিলামনা। সেই থেকেই কাস্টমার মিট আপের ধারণা। বেশ কিছু ক্রেতা নিয়ে তারা মিট আপের ব্যবস্থা করলাম। ফলে আমরা তাদের কাছে বিভিন্ন ফিডব্যাক পেয়েছি। কাস্টমারের সাথে আমাদের সম্পর্ক আরো দৃঢ় হয়েছে।”

তিনি আরো বলেন, “গাওয়া ঘি নিয়েই আমাদের যাত্রা শুরু হয়। পরে আমরা আরো অন্য বিভিন্ন পণ্য যোগ করি। এখন বেশ কিছু পণ্য রয়েছে অ্যানান’স ক্যারাভানে”
নতুন বছর নিয়ে রাকিমুন জয়া বলেন,“করোনার কারণে গত বছরের যে কাজগুলো বাকি ছিল, সেসব কাজ পূরণ করার সময় হলো এবছর। গত বছর আমি ই-কমার্সের শেখার ক্ষেত্রে বেশি মনোযোগ দিয়েছি। আর এই কাজগুলো এবছর কর্মজীবনে কাজে লাগাবো। এগিয়ে যাওয়া আসলে একটু চ্যালেঞ্জিং তারপরও সকল বাধা পেরিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।”

পরিধান শৈলীর যাত্রা নিয়ে তিনি বলেন, “চার বছর আগে অন্য নাম নিয়ে যাত্রা শুরু করে পরিধান শৈলী। গতবছর এর নাম পরিবর্তন করা হয়। এর মূল প্রোডাক্ট হলো শাড়ি, মূলত টাঙ্গাইলের ও মানিকগঞ্জের হাফসিল্ক শাড়ি পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের তাঁতের শাড়িও আছে। 

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ভবিষ্যৎ নারী উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যে সৈয়দা লুৎফুন নাহার বলেন, “যেকোনো পরিচয়ই গড়ে তুলতে আসলে সময় প্রয়োজন। একই সাথে সময় এবং শ্রম উভয়ই দিতে হবে। বিভিন্ন পিছুটান প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে সামনের দিকে এগিয়ে চলতে হবে ও নিজেকে দক্ষ করে তুলতে হবে ও নিজেকে প্রমাণ করতে হবে।”

একই প্রসঙ্গে রাকিমুন জয়া বলেন, “যেই পণ্য নিয়ে কাজ করছেন সেই পণ্য নিয়ে ভালোভাবে জানতে হবে। বাজারে ভালো বিক্রি হচ্ছে এমন পণ্য বাছাই না করে যে পণ্য সম্পর্কে ভালো জ্ঞান আছে সেই পণ্যই ব্যবসার জন্য বেছে নিতে হবে। পথে যেকোনো বাধা উপেক্ষা করতে সময়সময় লক্ষ্যে ফোকাস রাখতে হবে।” সকলের সুস্থতা কামনা করে প্রিতম সাহা অনুষ্ঠান সমাপ্ত করেন।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ