Skip to content

২২শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে পেঁয়াজের খোসা!

রান্নায় ব্যবহৃত একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান পেঁয়াজ। পেঁয়াজ ছাড়া তরকারি তো ভাবাই যায় না। প্রতিদিনের রান্নার অপরিহার্য একটি উপাদান পেঁয়াজ। কিন্তু পেঁয়াজের খোসাও যে নানান গুণে ভরপুর তা কি আমরা জানি? রান্নায় পেঁয়াজ দিই, কিন্তু পেঁয়াজের খোসা ফেলে দেই। এই ফেলে দেওয়া খোসারও রয়েছে নানা উপকারিতা। এসব উপকারিতা হলো:

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতেও পেঁয়াজের খোসার জুড়ি মেলা ভার। পেঁয়াজের খোসায় রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি, যা রোগপ্রতিরোধক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। পেঁয়াজের খোসা মেশানো চা-ও দূর করতে পারে গলাব্যথার সমস্যা।

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতেও ভূমিকা রাখে পেঁয়াজের খোসা ।

পেঁয়াজের খোসা দূর করতে পারে পেশির সমস্যা। পায়ে ব্যথা কিংবা পেশিতে টান লাগলে পেঁয়াজের খোসায় মিলবে উপকার। পেঁয়াজের খোসা সেদ্ধ করে নেওয়া পানিতে মধু মিশিয়ে খেলে আরাম পাবেন।

পেশিতে টান লাগলে পেঁয়াজের খোসায় মিলবে উপকার

ভিটামিন সি-এর ছাড়াও পেঁয়াজের খোসায় প্রচুর ভিটামিন এ আছে, যা দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে এবং ত্বকের নতুন কোষ গঠনেও সাহায্য করে। ত্বকের শুষ্কতা দূর করতেও পেঁয়াজের খোসার চা উপকারী।

চুলের যত্নেও ব্যবহার করা হয় পেঁয়াজের খোসা।

পেঁয়াজের খোসার আরেকটি উপকারী দিক হলো, এটি চুলের যত্নেও ব্যবহার করা হয়। পেঁয়াজের খোসায় রয়েছে প্রচুর সালফার। পেঁয়াজের খোসাসেদ্ধ পানি চুলের যত্নে ব্যবহার করলে খুশকি সমস্যা কমে যায় এবং চুলবৃদ্ধিতেও উপকারী ভূমিকা রাখে। পেঁয়াজের খোসাসেদ্ধ পানি দিয়ে সপ্তাহে ৩-৪ দিন চুল ধুয়ে নিলে চুল ঘন, কালো ও ঝলমলে হয়ে ওঠে।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ