Skip to content

১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নিরুদ্দেশ

পথ চলা জনম জনম ধরে ধূসর পৃথিবীর বিরাণ ভূমে,
জীবনের পাণ্ডুলিপি আয়োজনে স্মৃতির নরম ঠোঁট চুমে।
ব্যথা সয়ে ইচ্ছার শরীর ছুঁয়ে যেমন ছুঁয়ে মধু মাধুরীতে
ভয় কি এতে সোনামুখী চাঁদ যদি ডুবে মাধবী এ রাতে

এমন রজনীতে মনবাঁধা পড়ে সজনীতে ক্ষতি কী তাতে!
যতপ্রেম ততজ্বালা বিরহসমেতে হৃদয় ইশান কোণেতে!
কিছু আশা ও ভাষা কিছু অভিমানের মেঘ করেছে ভর
তাই বলে ভেবো না যেন আর পৃথিবী হয়ে গেছে হেন পর।

জল চাইতে ঝর্ণাতে গান শোনাতে কত যে মিনতি তাতে,
চন্দ্র, সূর্য মালিকের প্রীতিতে কীর্তিতে বন্দনা অর্চনাতে ,
দিনমান তোমাতে মুগ্ধ দ্বিধাহীন চিত্তে কীর্তন সংগীতে।
লুটাই তখন মাবুদ গো তোমারি চরণে জীবন ও মরণে,
এ প্রাণে নেই লাজ সেই তো মহান পুণ্যের কাজ একুনে।

নিরবধি কথা তার সনে, যার ছবি আঁকা মনো-বাতায়নে
কত রাত জাগা নির্জনে দু’নয়নে তারাদের অবগাহনে,
কোনো ভাঙা এক হৃদয় গড়ার গোপন মিশনে এই শ্রাবণে
কত রহমতে বারি বর্ষণে নাম জপতে সাধ যে জাগে মনে।
চেনা ঠিকানায় অসুখ বিসুখ বিশেষ এই তো থাকা বেশ
সেই তুমি এই তুমি হৃদয়ে অশেষ তবুও কেন নিরুদ্দেশ!

অনন্যা/এসএএস