Skip to content

২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জয়নুল আবেদীনের কাক

পৃথিবীতে কাক প্রথম সমাজ সংস্কারক
জয়নুল আবেদীন ছাপোষা কেরানি
এই কাকেদের অন্তরাত্মা

নোংরা-আবর্জনা-ডাস্টবিন
ফুটপাতে পচা গলা মাংস,আমিষ নিরামিষ
সর্বভুক প্রাণী কাক,সর্ব বিষামৃত গিলে নিয়ে
ভোরবেলা কোরাসে, জুড়ে দেয় দগ্ধ আত্মার কান্না
তাদের ঐক্যবদ্ধ সমাবেশ বড় বড় বিপ্লবের কথা মনে করিয়ে দেয়

কাকের কোনো ধর্ম নেই, গোত্র নেই, সমাজপতি
থাকে শুধু কালো রঙের পালক
দুর্ভিক্ষ পীড়িত মরে যাওয়া মানুষের মাংস খুঁটছে দেখে
কখনো হয়তো মনে হতে পারে, এরাও ফ্যাসিস্ট
কিন্তু অতলে গিয়ে পর্যালোচনা করলে বোঝা যায়
এই দুর্ভিক্ষ পীড়ন নিপীড়নের জন্য কাক তো দায়ী নয়

দায়ী সেই বিশেষ শ্রেণীর মানুষ
যারা কিনা ময়ূর পোষে, ময়ূরের পুচ্ছ লাগায়
ভাত ছড়িয়ে দিয়ে কখনো কাকেদের ডাকে
কাজ ফুরিয়ে গেলে চৌহদ্দীতে ঢুকতে দেয় না

জয়নুল আবেদীন জীবন পোড়া শিল্পী
কুৎসিত বলে সমাজ যাদের অপছন্দ করে
তুলির ভাষায় যথাযোগ্য মর্যাদা প্রদানই তার কাজ

এই পূর্ণ অবয়ব তার ঝড়, এই পূর্ণ অবয়ব তার বিদ্রোহ
এই পূর্ণ অবয়ব মূর্ত সত্তা, ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের হর্তাকর্তা
মানে ঝুঁকে পড়া, ধুকে পড়া পৃথিবীকে বাঁচিয়ে তুলে
সুন্দর করে গড়ে তোলার স্থপতি, সেই কাকেরা

কাকের মতো রোদে-তাপে-ঝড়ে,
লড়ে যাওয়া কুচকুচে কালো-বরণ মানুষেরা।

অনন্যা/জেএজে