Skip to content

২রা মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ১৯শে বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শচীন

শচীন মানে ক্রিকেট ইতিহাস
২২ গজে আবেগ ভরা গর্জে ওঠা উল্লাস।
সেই একটা কিশোর
মাথায় আঘাত পেয়েও ছাড়েনি সে লড়াই।
২৪শে এপ্রিল ১৯৭৩ সাল
জন্মেছিল সকলের প্রিয় ক্রিকেট ভগবান।

বিখ‍্যাত সুরকার শচীন দেববর্মন
পিতা নামের অক্ষরে মিলিয়ে রেখেছে শচীন তেন্ডুলকর।
মাত্র এগারো বছরের কিশোর
সেই শিবাজি পার্কে শুরু প‍্যাকটিসের শুভ আরম্ভ।
শ্রী রমাকান্ত আচরেকারের ছিল শর্ত
আউট না হলে তবেই মিলবে কয়েন।
গুরুদেবের থেকে পাওয়া কয়েন
পেয়েছে শচীন ১৩ টি আউট না হয়ে।

সালটা ১৯৯০
ইংল‍্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম সেঞ্চুরি আন্তর্জাতিক লড়াই।
সেই নব্বই এর দশকের ক্রিকেট মহামানব
ভারত পেয়েছিল শান্ত ক্রিকেট ঈশ্বর।
২০০১ সালে ওয়ানডেতে ১০০০০ গণ্ডি পার,
২০০২ সালে ডন ব্র‍্যাটমানের ৩০টি সেঞ্চুরি ভেঙে চুরমার!
বিশ্বের দরজায় এখন শচীন শচীন চিৎকার
ক্রিকেট মানেই আবেগ ভরা উল্লাস।
তবু শিরোপা ওঠেনি তুমি হওনি বিশ্বকাপ জয়ী উল্লাস
ছিল সেই ২৮টা বছরের অপেক্ষা লড়াই।
এলো ২০১১ সাল
মহেন্দ্র সিং ধনির নেতৃত্বে ভারত বিশ্বকাপ জয়ী।
সেদিন মাঠ ভরে উঠেছে চিৎকারে শচীন শচীন শচীন!

ক্রিকেট আজ তোমাকে বিদায়
বিমর্ষ আবেগে ভরে ছিল সে মাঠ।
ক্রিকেট ভগবান তুমি সকলের মাস্টার ব্লাস্টার
ভারতরত্নের রত্ন তুমি
ক্রিকেট প্রেরণার জাগরণ লিটিল মাস্টার।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ