Skip to content

২০শে মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | সোমবার | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এখানে কেউ নেই

এখানে কেউ নেই,নেই কোনো মানুষ কিংবা নিষিদ্ধ কিছু
কুকুর,বিড়াল,শকুন,হনুমান,বাঘ,সিংহ কিংবা রাক্ষুসেরা
শুধু একদল বুনো হাসঁ, কোকিলের ডাক আর গাংচিল
পথে প্রান্তরে, মেঠোপথ,ঘাটের ডিংঙি পাল তোলা নাও।

স্বচক্ষে স্বচ্ছ নোনাজল,টপকিয়ে টুপ,ডুবন্ত পানকৌড়ি
পারাপাড়ের অপেক্ষায়,চরযোদ্ধা,আগন্তুক ঘাটের মাঝি
নিস্তব্ধ বালুচর,কাঁশ বনের হাসি,পাখির কলতানে চৈতন্য
জলপথে মাছেদের কোলাহল,নিভৃতে নিস্তব্ধতা আঁধারে

রশ্মিরাগ এখনো,মাটি স্পর্শ করেনি কেন,সূর্য নেই বলে
বায়ান্নর আলোয় উজ্জীবিত কথন কতোই না শক্তিশালী
হিসেবের খেরোখাতা,খেয়েছে ঘুনপোকাঁ,শতাব্দীর তরঙ্গ
বিমুগ্ধতা,একরাশ নোনাজলে ভবিষ্যৎ হাতছানি দিচ্ছে

শৈশব, কৈশোর, যুবক, বৃদ্ধ, কৃষক, মজুর, ধনী, দরিদ্র
চাকুরে, ঠাকুরে, কাঠুরে,ঘাটুরে,হাটুরে,পাটুরে, খাটুরে
কাব্যের কাচামালে নোনাপানি লাফিয়ে স্ফুটে ঢেউ সৃষ্টি
ভাঙতে, ভাঙতে গড়ে ওঠে নগর,বন্দর,মানুষের বন্ধনে।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ