নারীদের অন্তরালে থাকা কিছু আবিষ্কার

নারীদের অন্তরালে থাকা কিছু আবিষ্কার
নারীদের অন্তরালে থাকা কিছু আবিষ্কার
বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন জীবন বিদ্যুতচালিত রেফ্রিজারেটর ছাড়া কল্পনাও করা যায়না । আমাদের জীবন অনেকটা সহজ করে দিয়েছে এই যন্ত্রটি। আর এই যন্ত্রটি আবিষ্কারের নেপথ্যে রয়েছেন ফ্লোরেন্স নামের একজন নারী। 

যদিও কাজী নজরুল ইসলাম বহু আগে বলেছিলেন,  'বিশ্বের যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর /অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।' তবে আজকের এই আধুনিক যুগে এসেও এ উক্তি আমরা কতটা বিশ্বাস করতে পেরেছি, সে বিষয়ে অনেকটাই সন্দেহ রয়েছে।


যুগে যুগে নানা আবিষ্কারে নারীর অবদান থাকলেও প্রকাশ্যে আসেনি তাদের বহু অবদানের কথা। আমাদের সমাজের ধারণা বিজ্ঞানের মতো এমন কঠিন বিষয়বস্তুতে নারী কিভাবে পারদর্শী হবে? এ নিশ্চয়ই পুরুষেরই আবিষ্কার।  আর এভাবেই অন্তরালে থেকে গেছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কারের পেছনে ভূমিকা রাখা নারীদের নাম। তেমনি ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার সম্পর্কে জানা যাক চলুন:

 


কম্পিউটার প্রোগ্রামিং

 

 

ইতিহাসের পাতায় প্রথম প্রোগ্রামার হিসেবে অ্যাডা লভালেইস নামের এক নারীর নাম রয়েছে সে কথা অনেকেরই অজানা। কেউ হয়তোবা কল্পনাও করতে পারেননি প্রথম প্রোগ্রামার একজন নারী৷  অ্যাডা লভালেইস ছিলেন প্রখ্যাত কবি লর্ড বাইরনের কন্যা। কম্পিউটারের জনক চার্লস ব্যাবেজের বন্ধুও ছিলেন তিনি। ১৮৪৩ সালে কম্পিউটারে চিঠি ও নাম্বার ব্যবহারের জন্য কোড কীভাবে কাজ করে, সেই সম্পর্কিত তার কাজের উপরে একটি বই প্রকাশিত হয়। 

 


ইনজেকশন সিরিঞ্জ

 

 

চিকিৎসাবিজ্ঞানে বর্তমানে বহুল ব্যবহৃত একটি সরঞ্জাম হচ্ছে ইনজেকশন সিরিঞ্জ। এর পেছনেও অবদান রয়েছে একজন নারী আবিষ্কারকের। ১৮৯৯ সালে একজন নারী বিজ্ঞানী লেটিটা গির ইনজেকশন সিরিঞ্জ আবিষ্কার করেন। কিন্তু তিনিও রয়ে গেছেন অন্তরালে।

 


বিদ্যুতচালিত রেফ্রিজারেটর

 

 

বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন জীবন বিদ্যুতচালিত রেফ্রিজারেটর ছাড়া কল্পনাও করা যায়না । আমাদের জীবন অনেকটা সহজ করে দিয়েছে এই যন্ত্রটি। আর এই যন্ত্রটি আবিষ্কারের নেপথ্যে রয়েছেন ফ্লোরেন্স নামের একজন নারী। 

 


ডিএনএ মডেল

 

 

ডাবল-হেলিক্স ডিএনএ মডেলের উদ্ভাবক হিসেবে জেমস ওয়াটসন ও ফ্র্যাঞ্চিস ক্রিক এর কথা সবার জানা আছে নিশ্চয়। কিন্তু এই মডেলের অস্তিত্ব আবিষ্কার করেছিলেন একজন নারী রোসালিন্ড ফ্র্যাঙ্কলিন। ১৯৫২ সালে তিনি একটি মেশিনের ডিজাইন করেন। যা দিয়ে তিনি এমন একটি ছবি তোলে যা ডিএনএ’র আকারের প্রমাণ দেখায়। ফ্র্যাঙ্কলিনের সহকর্মী  ছবিটি ওয়াটসন ও ক্রিককে ছবিটি দেখান। পরবর্তীতে ১৯৫৩ সালে তাদের কাজের সঙ্গে উক্ত ছবিটিও প্রকাশ পায়। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ১৯৫৮ সালে ওভারিয়ান ক্যান্সারের কাছে পরাজিত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ফ্র্যাঙ্কলিন এবং ১৯৬২ সালে দুইজন পুরুষ বিজ্ঞানী ওয়াটসন ও ক্রিক নোবেল পুরষ্কার পান।

 


উইন্ডশিল্ড ওয়াইপারস

 

 

উইন্ডশিল্ড ওয়াইপারস গাড়ির অত্যাবশ্যকীয় একটি অংশ। যা ছাড়া গাড়ি কল্পনাও করা যায় না। এই জিনিসটির আবিষ্কারকও যে কোন নারী হতে পারে তা হয়তো কেউ কল্পনাও করতে পারবেনা। ১৯০৩ সালে নিউ ইউর্কের অ্যালাবামাতে বসবাসরত ম্যারি অ্যান্ডারসন সর্বপ্রথম কাঠ ও রাবারের তৈরি লম্বা হাতলের মতো জিনিস তৈরি করেন। যা গাড়ির কাঁচ থেকে তুষার ও বৃষ্টির পানি সরিয়ে দেবে। সেটাই আজকের দিনের উইন্ডশিল্ড ওয়াইপারস।