লিপস্টিক ব্যবহারের কিছু ভুল নিয়ম

লিপস্টিক ব্যবহারের কিছু ভুল নিয়ম
ছবি: সংগৃহীত
আমাদের মধ্যে শুধু গাড় করে লিপস্টিক ব্যবহারের প্রবণতা রয়েছে। কিন্তু এতে করে কিছুক্ষণ পর ঠোট শুকিয়ে যায়।  তখন দেখতেও যেমন খারাপ লাগে তেমনি নিজের কাছে অস্বস্তিও লাগে।  তাই আগে লিপবাম ব্যবহার করে তারপর লিপস্টিক ব্যবহার করা উচিত।

নারীর সাজসজ্জা পরিপূর্ণতা পায় লিপস্টিক ব্যবহারের পরেই।  পুরো সাজটাই ফিকে লাগে যদি লিপস্টিক না থাকে। লিপস্টিক যেন সৌন্দর্যকে দ্বিগুণ করে দেয়।  তবে অনেক সময় আমাদের কিছু সাধারণ ভুলের জন্য হতে পারে হিতের বিপরীত।  একটি ভুল নষ্ট করে দিতে পারে পুরো সাজ। চলুন তবে আজকের আয়োজনে সেই ভুলগুলো কি তা জানার চেষ্টা করি- 

 


১. ইদানীং আমাদের ড্রাই লিপস্টিকের উপর ঝোঁক একটু বেশি। আমরা চাই লিপস্টিক ঠোঁটে দেয়ার পর ড্রাই হয়ে যাক , অনেকক্ষণ ঠোটে থাক। তবে এতে করে ঠোঁটের ময়েশ্চারাইজার হারায়।  তাই সবসময় ড্রাই লিপস্টিক ব্যবহার না করে ময়েশ্চারাইজার সাথে এমন লিপস্টিক ব্যবহার করা উচিত৷ 


২. আপনি কোন রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করবেন তা লিপস্টিক এর রঙ দেখে নয় বরং গায়ের রঙ অনুযায়ী নির্বাচন করা উচিত। নাহয় আপনার পুরো সাজটিই নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আপনাকে বেমানান লাগতে পারে। 


৩. অনেককেই দেখা যায় মোটা করে লিপলাইনার দিতে।  কিন্তু এতে করে সৌন্দর্য বাড়ে না বরং বেশি ক্ষেত্রেই বয়স্ক লাগতে পারে ৷ ঠোঁটের সাথে যায় না এমন রঙের লিপ লাইনার ব্যবহার করা উচিত না। আর সবচেয়ে বড় কথা, আপনাকে সবসময় লিপলাইনার ব্যবহার করতে হবে এমন নয়। শুধু লিপস্টিক ব্যবহার করলে আপনাকে বেশি ন্যাচারাল লাগতে পারে।  


৪. চোখে ভালো লাগলেই হুট করে সেই লিপস্টিক কিনে ফেলা উচিত নয়।  সঠিক রঙের লিপস্টিক খুঁজে বের করে, কেনার আগে অবশ্যই ট্রায়াল দেয়া উচিত।


৫. আমাদের মধ্যে শুধু গাড় করে লিপস্টিক ব্যবহারের প্রবণতা রয়েছে। কিন্তু এতে করে কিছুক্ষণ পর ঠোট শুকিয়ে যায়।  তখন দেখতেও যেমন খারাপ লাগে তেমনি নিজের কাছে অস্বস্তিও লাগে।  তাই আগে লিপবাম ব্যবহার করে তারপর লিপস্টিক ব্যবহার করা উচিত।