ত্বকের র‍্যাশ দূর হবে নিমিষেই

ত্বকের র‍্যাশ দূর হবে নিমিষেই
ত্বকের র‍্যাশ দূর হবে নিমিষেই
প্রথমে অ্যাভোক্যাডো, কলা ও পেঁপে দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে নিন। তারপর হালকা পানি দিয়ে মিশ্রণটিকে ভালোমত ঘন করে নিন। ঘনীভূত মিশ্রণটি ত্বকে নিয়মিত লাগান। সাতদিন লাগানোর পরেই দেখতে পাবেন জাদুকরী গুণাগুণ।

ত্বকে র‍্যাশ একটি বারোমাসি সমস্যা। বিশেষ করে শীতকালে এর প্রাদুর্ভাব অনেকটা বেশি দেখা যায়। অনেকটা লালচে ঘামাচির মতো দেখতে এ র‍্যাশ ত্বকের বিভিন্ন স্থান; নাক, গালের দু’পাশ, কপাল এবং  অনেক সময়  হাত-পা এ দেখা দেয়। যার ফলে, ব্যক্তির ত্বকে সবসময় চুলকানি কিংবা ইচিং দেখা যায়। মূলত, শরীরের চর্বিযুক্ত টিস্যুর তারতম্যের কারণে এমনটা হয়ে থাকে। তবে সঠিক পরিচর্যায় এই সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া সম্ভব। অনেক সময় দেখা যায় বিভিন্ন ক্রিম, পাউডার বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের ফলে ত্বকে র‌্যাশ দেখা দিচ্ছে। বাজারের কেনা প্রোডাক্ট ব্যবহারের চেয়ে ঘরোয়া উপায়ে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করাই উত্তম। এতে ত্বকের কোনো ক্ষতি হয়না। কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই ঘরোয়া উপায়ে ত্বকে অবাঞ্ছিত র‌্যাশ চিরতরে বিদায় করার কিছু টোটকা জেনে নেওয়া যাক-

 


ফ্রুট পেস্ট

 

 

প্রথমে অ্যাভোক্যাডো, কলা ও পেঁপে দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে নিন। তারপর হালকা পানি দিয়ে মিশ্রণটিকে ভালোমত ঘন করে নিন। ঘনীভূত মিশ্রণটি ত্বকে নিয়মিত লাগান। সাতদিন লাগানোর পরেই দেখতে পাবেন জাদুকরী গুণাগুণ।


শসা

 

 

র‌্যাশ কমিয়ে ফেলতে শসা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এক্ষেত্রে শসা পেস্ট করে মুখে লাগালে ভালো ফল পাওয়া যায়। 

 

দুধের সর

 

 

দুধের সরের মিশ্রণ নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বকের র‌্যাশ দূর হয়। এছাড়াও ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে দুধের সর। 

 

মধু

 

 

মধুতে রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান। এটি ত্বকের ক্ষতিগ্রস্ত কোষগুলোকে পুনরুজ্জীবিত করে তোলে এবং দূর করে অবাঞ্ছিত র‍্যাশ।