পরিপাটি ত্বকের যত্নে 'মাটি'

পরিপাটি ত্বকের যত্নে 'মাটি'
পরিপাটি ত্বকের যত্নে 'মাটি'
মুলতানি মাটির সঙ্গে লেবু বা টমেটোর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন রাতারাতি ট্যান দূর হয়ে যাবে।

রূপচর্চায় সেই আদিকাল থেকে ব্যবহৃত হয়ে আসছে মুলতানি মাটি। মুলতানি মাটি বা ফুলার’স আর্থ প্রাকৃতিক খনিজে ভরপুর। অ্যালুমিনিয়াম সিলিকেট, ম্যাগনেসিয়াম ক্লোরাইড সমৃদ্ধ এই মাটির স্বাভাবিক ক্ষমতা রয়েছে ধুলোময়লা পরিষ্কার করার ও অতিরিক্ত তেল শোষণ করে নেওয়ার। তাই কোনও রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার ছাড়াই প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বক পরিষ্কার রাখতে এবং তৈলাক্ত ভাব দূর করতে মুলতানি মাটির ব্যবহার খুবই কার্যকর।

 

 

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য
মুলতানি মাটির সঙ্গে টক দই বা গোলাপজল মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের অতিরিক্ত তেল দূর হবে। 

 

স্ক্রাবার হিসেবে
প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবেও মুলতানি মাটির ব্যবহার রয়েছে। সামান্য মধু ও আমন্ড গুঁড়ো এবং ওটমিলের সঙ্গে মুলতানি মাটি মিশিয়েও ব্যবহার করা যায়। দূর হবে ত্বকে জমে থাকা মরা চামড়া ও ব্ল্যাকহেডস।

 

মিশ্র ত্বকের যত্নে  
মুলতানি মাটির প্যাক তৈরি করুন সামান্য হলুদ, দুধ আর মধু মিশিয়ে। মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ২ মিনিট। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

 

ব্রণমুক্ত ত্বকের জন্য
মুলতানি মাটি আর চন্দন পেস্ট মিশিয়ে প্যাক রাতে ঘুমানোর আগে ব্রণের ওপর লাগিয়ে রাখুন। সকালে উঠে দেখবেন শক্ত হয়ে আপনিই খসে পড়ছে প্যাক। পাশাপাশি ব্রণ শুকিয়ে ছোট হয়ে গিয়েছে অনেকটাই।

 

রোদে পোড়া ত্বকের যত্নে
মুলতানি মাটির সঙ্গে লেবু বা টমেটোর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন রাতারাতি ট্যান দূর হয়ে যাবে।