সুস্বাদু চিংড়ির কোরমা

সুস্বাদু চিংড়ির কোরমা
ছবি: সংগৃহীত
পাত্র গরম হলে এতে তেল দিয়ে ঘি, দুধ, কিসমিস, গরম মসলা গুঁড়া বাদে সব উপকরণ এক সাথে দিয়ে দিন। সাথে অল্প কিছুটা পানি দিয়ে জ্বাল মিডিয়াম করে ৫ মিনিট কষিয়ে নিন।

বাজার ঘুরে চিংড়ির দাম চড়া দেখা গেলেও যারা চিংড়ি খেতে ভালো বাসেন তারা কিন্তু সেই চড়া দামেই চিংড়ি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। চিংড়ি মাছে কোন প্রকার কোন কাটা নেই।তাই ঘরের ছোটরা এই মাছ খেতে বেশ পছন্দ করে থাকে। চিংড়ির মালাইকারী, চিংড়ি ভুনা, দই চিংড়ি, চিংড়ির কোরমা, এছাড়াও চিংড়ির নানান পদের ভর্তা। চিংড়ির কোরমা টা বাচ্চাদের থেকে শুরু করে সবার প্রিয়। সাদা ভাত, পোলাও, বিরিয়ানি সব কিছুর সাথে মানিয়ে যায় এই চিংড়ির কোরমা।

 

উপকরণ

 

১. কাপের চার ভাগের এক ভাগ তেল

২. এক কাপ চিংড়ি

৩. আধা কাপ পেঁয়াজ-কুচি

৪. দুই টেবিল চামচ পেঁয়াজ বাটা

৫. এক চা চামচ কাঁচামরিচ বাটা

৬. এক চা চামচ রসুন বাটা

৭. এক চা চামচ কাজুবাদাম বাটা

৮. এক চা চামচ জিরা বাটা

৯. এক কাপ দুধ

১০. পরিমাণ-মতো লবণ

১১. আধা চা চামচ গরম মসলার গুঁড়ো

১২. দুই চা চামচ কিসমিস

১৩. এক টেবিল চামচ ঘি

 

পদ্ধতি

 

চিংড়ি আগে পরিষ্কার করে নিন। মাছের মাথা রেখে মাছ পরিষ্কার করুন এতে মাছ অনেকটা বড় দেখাবে এবং তরকারিতে দেখতে মানানসই লাগবে। পরিষ্কার হয়ে এলে এতে এক ফালি লেবু ও অল্প একটু পরিমাণ আদা বাটা দিয়ে মেখে রেখে দিন। এবার একটি পাত্র নিয়ে চুলায় দিয়ে জ্বাল বাড়িয়ে দিন। পাত্র গরম হলে এতে তেল দিয়ে ঘি, দুধ, কিসমিস, গরম মসলা গুঁড়া বাদে সব উপকরণ এক সাথে দিয়ে দিন। সাথে অল্প কিছুটা পানি দিয়ে জ্বাল মিডিয়াম করে ৫ মিনিট কষিয়ে নিন। কষানো হয়ে এলে আগে থেকে মাখিয়ে রাখা চিংড়ি মাছ গুলো মসলাতে দিয়ে দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। এর পর দুধ ও স্বাদ অনুযায়ী লবণ দিয়ে আবার ৫ মিনিট রান্না করুন।

 

যখন দেখবেন মসলাটা মাখা মাখা হয়ে এসেছে তখন এতে গরম মসলা গুঁড়া, ঘি ও কিসমিস দিয়ে একটু নাড়াচাড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। পরিবেশনের সময় চাইলে উপরে কিছুটা কিসমিস দিয়ে দিতে পারেন। ব্যস, হয়ে গেলো মজাদার স্বাদের চিংড়ির কোরমা।