ভিন্ন স্বাদে দশ পুরি

ডালপুরি

রেসিপি - ০৫

ডালপুরি
ডালপুরি
ডাল সেদ্ধ হয়ে নরম হয়ে গেলে পানি শুকানো পর্যন্ত রান্না করুন। খেয়াল রাখবেন, ডাল কিন্তু  একেবারে শুকনো হতে হবে। এরপর ডাল ঠাণ্ডা হলে হাতে মেখে পুর তৈরি করে নিন।

ডালপুরি এমন একটা খাবার যেটার ওপর ছোট-বড় সবারই কমবেশি ঝোঁক রয়েছে।  রাস্তার পাশে থাকা ছোট দোকানগুলো থেকে আমরা প্রায়ই বিকালে ডালপুরি কিনে খাই। কিন্তু আপনি চাইলে খুব সহজে এটি বানিয়ে নিতে পারবেন নিজের ঘরেই। এবার তবে দেখা নেওয়া যাক কিভাবে বানাবেন ডালপুরি-

 

 

উপকরণ

 

পুরের জন্য

১।  মসুর ডাল -১/৪ কাপ

২। হলুদ গুঁড়ো - সামান্য পরিমাণে

৩।  মরিচ গুঁড়ো - আধা চা চামচ

৪। পেঁয়াজকুচি - ২ টি

৫। কাঁচা মরিচ -২ টি

৬। তেল - পরিমাণ মতো

৭।লবণ- স্বাদমতো

 

 

ডো তৈরির জন্য

১। ময়দা/আটা - ১কাপ

 ২। তেল - ২ টেবিল চামচ

৩। লবণ - স্বাদমতো

৪। কুসুম গরম পানি - পরিমাণ মতো -

৫। তেল- ভাজার জন্য

 

 

প্রণালী

 

প্রথমে একটি প্যানে তেল গরম করে এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নরম করে ভেজে নিন। এরপর এতে পুরের বাকি সব উপকরণ দিয়ে মসলা ও ডাল কিছুক্ষন কষিয়ে নিন।  এবার ১ কাপ পরিমাণ পানি দিয়ে ডাল রান্না করুন।

 

ডাল সেদ্ধ হয়ে নরম হয়ে গেলে পানি শুকানো পর্যন্ত রান্না করুন। খেয়াল রাখবেন, ডাল কিন্তু  একেবারে শুকনো হতে হবে। এরপর ডাল ঠাণ্ডা হলে হাতে মেখে পুর তৈরি করে নিন।

 

এবার একটি পাত্রে ময়দা ও লবণ নিয়ে মিশিয়ে এতে ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে ময়দা ভালোমত মিশিয়ে নিন।তারপর পরিমাণ মতো পানি দিয়ে রুটি বেলার মতো করে ডো তৈরি  করুন।  ডো থেকে ছোটো ছোটো বল আকৃতির তৈরি করে নিন।

 

এরপর একটি করে বল হাতে নিয়ে তালুতে রেখে এমনভাবে চ্যাপ্টা করে ছড়িয়ে নিন যাতে মাঝখানটুকু একটি মোটা থাকে। এরপর মোটা অংশে পুর দিয়ে পাশের অংশগুলো ভালো করে ঢেকে গোল বলের আকৃতি দিয়ে দিন। মনে  রাখবেন বলের ভেতরে যেনো কোনো বাতাস না থাকে।

 

 এভাবে এক এক করে সবগুলো বল তৈরি করে নিন। এরপর রুটি বেলার পিঁড়িতে ছোটো ছোটো গোল করে সাবধানে বেলে পুরির আকার দিন। লক্ষ্য রাখবেন ভেতরের ডাল যেনো বেড়িয়ে না পড়ে।

 

 একটি প্যানে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম করে নিন। একটি একটি করে পুরিগুলো এপাশ ওপাশ করে ভেজে নিন। ভাজা শেষে তেল ঝরিয়ে টমেটো সস কিংবা চাটনির সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার ডালপুরি।