পাকিস্তানে নারী নিরাপত্তার বেহাল দশা

পাকিস্তানে নারী নিরাপত্তার বেহাল দশা
ছবি : সংগৃহীত
নারীদের অনিরাপদ মনে করা ব্যক্তিদের বেশির ভাগ মানুষই খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বাসিন্দা। প্রদেশটি থেকে জরিপে অংশ নেওয়া ৪০ শতাংশ মানুষ নারীদের অনিরাপদ বলেছেন। এই মানুষগুলো তাদের অভিজ্ঞতা থেকেই এই মত প্রকাশ করেছেন। এ থেকে বোঝাই যাচ্ছে এই প্রদেশের নারীরা কতটা নিরাপদ! বাস্তবিক অভিজ্ঞতা তাদের অনিরাপত্তার বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আজও এক ভয়াবহ অনিরাপত্তার মাঝেই জীবন কাটাতে হচ্ছে নারীদের। সংবিধানে নারী নিরাপত্তার কথা লেখা থাকলেও সামাজিকভাবে প্রতিনিয়তই হতে হচ্ছে বৈষম্যের শিকার। এরমধ্যে অন্যতম হলো দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তান। পাকিস্তানের অনেকেই মনে করেন যে নারীরা আসলে পাকিস্তানে একেবারেই অনিরাপদ। সম্প্রতি এক জরিপে দেখা গেছে যে, দেশটির উল্লেখযোগ্য পরিমাণ জনসংখ্যাও এর সাথে একমত। 

 

করাচিভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান পালস কনসালট্যান্ট নামের একটি প্রতিষ্ঠান ১৮ হাজার পাকিস্তানিকে নিয়ে পাকিস্তানে নারী নিরাপত্তা বিষয়ক একটি জরিপ করেছে। তাদের করা জরিপে উঠে এসেছে, পাকিস্তানের ৩৫ শতাংশ মানুষ মনে করে পাকিস্তানে কোনো নারীই নিরাপদ নয়। ৪৩ শতাংশের মনে করেন, কিছু দিক থেকে নারীরা নিরাপদ। অন্যদিকে ২০ শতাংশ মানুষ মনে করেন, নারীরা নিরাপদ পাকিস্তানে। 

 

নারীদের অনিরাপদ মনে করা ব্যক্তিদের বেশির ভাগ মানুষই খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বাসিন্দা। প্রদেশটি থেকে জরিপে অংশ নেওয়া ৪০ শতাংশ মানুষ নারীদের অনিরাপদ বলেছেন। এই মানুষগুলো তাদের অভিজ্ঞতা থেকেই এই মত প্রকাশ করেছেন। এ থেকে বোঝাই যাচ্ছে এই প্রদেশের নারীরা কতটা নিরাপদ! বাস্তবিক অভিজ্ঞতা তাদের অনিরাপত্তার বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে।

 

অন্যদিকে খাইবার পাখতুনখাওয়ার ৩৫ শতাংশ মানুষ মনে করেন, অনিরাপদ হলেও কিছু দিক থেকে পাকিস্তানে নারীরা নিরাপদ। আর নারীরা সম্পূর্ণ নিরাপদ বলে মনে করেন মাত্র ১৯ শতাংশ বাসিন্দা। খাইবার পাখতুনখাওয়ার প্রদেশের নারী নিরাপত্তা সম্পর্কে বেশ পরিষ্কার একটি পরিস্থিতি উঠে এসেছে এই জরিপে।পাঞ্জাব প্রদেশের ৩৫ শতাংশ মানুষ পাকিস্তানে নারীদের অনিরাপদ মনে করেন। আর ৪১ শতাংশ মনে করেন, নারীরা কিছু দিক থেকে নিরাপদ। এ ছাড়া ২১ শতাংশ মনে করেন নারীরা সম্পূর্ণ নিরাপদ।


পাকিস্তানে নারীদের কিছু কিছু দিক থেকে নিরাপদ মনে করার তালিকায় প্রথমেই রয়েছে বেলুচিস্তান। প্রদেশটির ৭৪ শতাংশ নাগরিক তাঁদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে এমন মত দিয়েছেন। অন্যদিকে বেলুচিস্তানে ১৯ শতাংশ মানুষ পাকিস্তানে নারীদের অনিরাপদ মনে করেন। পাকিস্তানে নারীরা সম্পূর্ণ নিরাপদ বলে মনে করেন জরিপে অংশ নেওয়া প্রদেশটির মাত্র ৭ শতাংশ মানুষ।

 

জরিপে আরো দেখা গেছে, দরিদ্র ৪৫ শতাংশ মানুষ মনে করেন, পাকিস্তানে নারীরা নিরাপদ নন। এ ছাড়া নিম্নমধ্যবিত্ত শ্রেণির ৩৫, মধ্যবিত্ত শ্রেণির ৩০, উচ্চমধ্যবিত্ত শ্রেণির ২৯ ও উচ্চবিত্ত শ্রেণির ৩৪ শতাংশ মানুষ নারীদের অনিরাপদ মনে করেন।

আবার পুরুষদের থেকে নারীরা দেশের নারীদের বেশি নিরাপদ বলে মনে করেন। ২৯ শতাংশ নারী মনে করেন, বাড়ির বাইরে তারা নিরাপদ। অন্যদিকে, ২২ শতাংশ নারীদের নিরাপদ বলে মনে করেন।

 

একটি দেশের জনসংখ্যার অর্ধেক যেখানে নারী, সেখানে নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করতে পারা আসলে লজ্জার। এ লজ্জা কেবল দেশের নয়, এ লজ্জা সমাজের, সমাজে বসব্সকারী ব্যক্তির নিজের। পাকিস্তান এই দায় কোনোভাবেই এড়াতে পারেনা। নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পৃথিবীর সকল নারীদের এক জোট হওয়া উচিত।