কেন খাবেন কাজুবাদাম ?

কেন খাবেন কাজুবাদাম ?
কেন খাবেন কাজুবাদাম ?
আমরা যারা শহরে বসবাস করি ধুলোবালি ও দূষিত বায়ু তাদের জন্য নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এভাবে প্রতিদিন যদি চোখের মধ্যে ধুলো যায় তাহলে খুব সহজেই চোখের মারাত্বক ক্ষতি হতে পারে। তাই যারা ধুলোর রাজ্যে বসবাস করেন তাদের উচিত নিয়মিত কাজু বাদাম খাওয়া। কারণ কাজু বাদামে আছে জিয়াজ্যানথিন নাম একটি পিগমেন্ট যা আপনার চোখের রেটিনাতে একটি আবরণ তৈরী করে চোখকে ধুলোবালি ও আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে রক্ষা করে।

আগেকার দিনের তুলনায় বর্তমান সময়ে মানুষ অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন। এরই ধারাবাহিকতায় শরীর সুস্থ্য রাখতে আমরা অনেকেই স্নাকস হিসেবে কাজু বাদাম খেতে খুবই পছন্দ করি। কাজু বাদাম খুবই পুষ্টিকর একটি খাদ্য এতে অনেক ধরনের পুষ্টি উপাদান বিদ্যমান তন্মধ্যে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো ফাইবার, প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেলস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস, ফাইটোকেমিক্যালস, ওমেগা-৩ এবং ওমেগা-৬ ফ্যাটি এসিড ইত্যাদি। হ্যাঁ এখন তাহলে জেনে নেয়া যাক কাজু বাদাম খেলে আপনি কি কি উপকার পাবেন। 

হৃদরোগ প্রতিরোধে

হৃদরোগ বাংলাদেশীদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ। কাজুবাদামে রয়েছে স্বাস্থ্যকর ওমেগা-৩ এবং ওমেগা-৬ ফ্যাটি এসিড যা দেহে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল (এলডিএল) এর পরিমান কমিয়ে দেয় ভাল কোলেস্টেরল (এইচডিএল) এর পরিমাণ বাড়িয়ে দেয় ফলে হৃদরোগের ঝুকি কমে যায় অনেকাংশে।

চোখের যত্নে

আমরা যারা শহরে বসবাস করি ধুলোবালি দূষিত বায়ু তাদের জন্য নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এভাবে প্রতিদিন যদি চোখের মধ্যে ধুলো যায় তাহলে খুব সহজেই চোখের মারাত্বক ক্ষতি হতে পারে। তাই যারা ধুলোর রাজ্যে বসবাস করেন তাদের উচিত নিয়মিত কাজু বাদাম খাওয়া। কারণ কাজু বাদামে আছে জিয়াজ্যানথিন নাম একটি পিগমেন্ট যা আপনার চোখের রেটিনাতে একটি আবরণ তৈরী করে চোখকে ধুলোবালি আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে রক্ষা করে। এছাড়া এটি ম্যাকুলার ডিজেনেরেশন নামক চোখের রোগ প্রতিরোধ করে। 

অ্যানিমিয়া বা রক্তস্বল্পতা প্রতিরোধে

এতে উপস্থিত কপার অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা নামক রোগ প্রতিরোধ করে। কপার একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস তাই এটি আমাদের দেহ থেকে ফ্রি র‌্যাডিকেল বের করে দেয় এবং ক্যান্সারের ঝুকি কমায়। বিশেষ করে যেসব মহিলাদের অ্যানেমিয়া আছে তাদের ‍ প্রতিদিন কাজু বাদাম খাওয়া উচিত  

ত্বকের সুরক্ষায়

কাজু বাদামের তেলে রয়েছে সেলেনিয়াম, জিংক, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন ফসফরাস। যা আপনার ত্বককে দেবে দারুণ সুরক্ষা। তাছাড়া এতে উপস্থিত সেলেনিয়াম একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়ক হিসেবে কাজ করে। 

ওজন কমাতে 

ওজন কমাতে কাজু বাদামের জুড়ি মেলা ভার। এতে উপস্থিত ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড দেহের অতিরিক্ত ফ্যাট বার্নিং করতে সাহায্য করে। কাজু বাদামে উপস্থিত ফাইবার ক্ষুধা কমিয়ে দেয় ফলে ওজন নিয়ন্ত্রন করা অনেক সহজ হয়। তবে ওজন কমানোর জন্য কাজু বাদাম খেতে হবে কাঁচা লবণবিহীন ভাবে। 

কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধে 

কাজুবাদামে উপস্থিত ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য, কোলন ক্যানসার হৃদরোগ প্রতিরোধে দারুন ভূমিকা পালন করে। 

চুলের যত্নে 

কাজু বাদামে উপস্থিত কপার চুলের রন্জক পদার্থ মেলাটোনিন বৃদ্ধিতে সহায়তা করে ফলে চুল হয় মসৃণ স্বাস্থ্যবান। 

পুষ্টিকর কাজুবাদাম খান সুস্থ্য থাকুন।