সমস্যা যখন দাঁতে শিরশির

সমস্যা যখন দাঁতে শিরশির
সমস্যা যখন দাঁতে শিরশির
শিরশিরকে মেডিকেলের ভাষায় বলা হয় সেনসিটিভিটি। দাঁতের উপরিভাগের শক্ত আবরণকে বলা হয় এনামেল। যা নন সেনসিটিভ অর্থাৎ এর মধ্যে কোন অনুভূতি নেই (আমাদের চুল ও নখের মতো)। যখন কোন কারণে এ আবরণ ক্ষয় হয়ে যায় তখন এ সেনসিটিভিটি ডেভেলপ করে।

ঈদ তো চলে গেল। আশা করি সবাই ভালো আছেন, সুস্থ আছেন। ঈদ মানে যেমন খুশি ঠিক তেমনি খাওয়াদাওয়া এর অন্যতম অনুষজ্ঞ। প্রচুর দাওয়াতও এ সময় খাওয়া হয়। খাবারে থাকে প্রচুর মিষ্টান্ন। এ মিষ্টি খেতে গেলেই যত বিপত্তি! হঠাৎ করেই দাঁতগুলো শিরশির করতে শুরু করে। অথবা খাওয়া শেষে বরফ ঠাণ্ডা কোকেও করতে পারে শিরশির। 

 

এ শিরশিরকে মেডিকেলের ভাষায় বলা হয় সেনসিটিভিটি। দাঁতের উপরিভাগের শক্ত আবরণকে বলা হয় এনামেল। যা নন সেনসিটিভ অর্থাৎ এর মধ্যে কোন অনুভূতি নেই (আমাদের চুল ও নখের মতো)। যখন কোন কারণে এ আবরণ ক্ষয় হয়ে যায় তখন এ সেনসিটিভিটি ডেভেলপ করে। মিষ্টি ও ঠাণ্ডা জাতীয় খাবার এ অনুভূতি তীব্র করে তোলে। 


বিভিন্ন কারণে এনামেল ক্ষয় হতে পারে। যেমন:


১. খুব জোরে জোরে এগ্রেসিভলি ব্রাশ করা। 

২. খুব বেশি টক জাতীয় খারাব খাওয়া। 

৩.বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা ইত্যাদি 

 

এ সমস্যা সমাধানে দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিৎ। সাধারণত এক্ষেত্রে গ্লাস আইনোমার ফিলিং দেয়া হয়। 

 

 

প্রতিরোধ


১.  নিয়মিত সঠিক নিয়মে দাঁত ব্রাশ করা। 

২. খুব বেশি টক খাবার নিয়মিত না খাওয়া। 

৩. দেহের অন্যান্য রোগের চিকিৎসা করা। 


সর্বপোরি আমাদের সবাইকে আমাদের মুখ ও দাঁতের ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। দাঁত ও মুখের যেকোন সমস্যায় অবহেলা না করে দ্রুত দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। 

 

 

ডা. ফারহানা নাজমুন যুথি 
বিডিএস (ঢাকা ডেন্টাল কলেজ) 
পিজিটি( কনজারভেটিভ এন্ড অপারেটিং ডেন্টিস্ট্রি)
ওরাল এন্ড ডেন্টাল সার্জন 
সেন্ট্রাল মুক্তা হাসপাতাল, টাংগাইল।