স্বনামধন্য অভিনেত্রী দিলারা জামানের জন্মদিন আজ

স্বনামধন্য অভিনেত্রী দিলারা জামানের জন্মদিন আজ
ছবি: সংগৃহীত
আজ ১৯ জুন, ৭৮ এ পা রেখেছেন এই কিংবদন্তি অভিনেত্রী।  তবে বয়স যে কেবলই একটি সংখ্যামাত্র তা তিনি প্রমাণ করছেন প্রতিনিয়ত।  এই বয়সেও অভিনয় জগতে তিনি নিয়মিত মুখ।

বাংলাদেশের স্বনামধন্য অভিনেত্রী দিলারা জামান। যার অভিনয় বারংবার মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। ১৯৬৪ সালে যখন দেশে প্রথম টেলিভিশন চালু হয় তার ঠিক দুই বছরের মাথায় টেলিভিশন জগতে পা রেখেছিলেন তিনি।  সেই শুরু থেকেই তিনি ছিলেন অদম্য। বয়সের ভারও দমিয়ে রাখতে পারেনি তাকে। মায়ের চরিত্রে বরং আরো বেশি ভক্তকুলের হৃদয় ছুঁয়েছেন। আজ এই কিংবদন্তি অভিনেত্রীর জন্মদিন।   

 

১৯৪৩ সালের ১৯ জুন পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলায় জন্মগ্রহণ করেন দিলারা জামান। তবে তাঁর জন্মের কিছুদিন পরই বর্ধমান ছেড়ে আসানসোলে চলে যান তাঁর পরিবার। এরপর ১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের পর তারা যশোর জেলায় চলে আসেন। 


শিক্ষা জীবন থেকেই টুকটাক অভিনয়ের সাথে যুক্ত হন তিনি। স্কুলজীবনেই প্রথম মঞ্চনাটকে অভিনয় করেন । তখন তিনি  ঢাকার বাংলাবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এরপর স্কুলের পাঠ চুকিয়ে তিনি ভর্তি হন ইডেন মহিলা কলেজে। 


শিক্ষাজীবনে টুকটাক অভিনয়ের সাথে যুক্ত থাকলেও শিক্ষাজীবন শেষ করে সর্বপ্রথম ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেন শিক্ষকতাকেই। কিন্তু অভিনয়ের প্রতি ছিলো তাঁর প্রবল টান। যে টানকে উপেক্ষা করতে না পেরে শিক্ষকতার পাশাপাশি অপেশাদার ভাবে  অভিনয় করা শুরু করে দেন। 


তবে আনুষ্ঠানিকভাবে টেলিভিশন জগতে পা রাখেন ১৯৬৬ সালে। তখন বাংলাদেশে টেলিভিশন সম্প্রচার হয়েছে কেবল ২ বছর। তাঁর  অভিনীত প্রথম নাটক ‘ত্রিধরা’ । তবে তাঁর অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক নাটক 'সকাল-সন্ধ্যা' । চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন ১৯৯৩ সালে।  মোরশেদুল ইসলাম পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘চাকা’-তে অভিনয় করে সে যাত্রা শুরু করেন গুণী এই অভিনেত্রী।  


এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। তাঁর অভিনীত জনপ্রিয় কয়েকটি চলচ্চিত্র হলো- আগুনের পরশমণি, চন্দ্রগ্রহণ, মনপুরা, বৃহন্নলা, হালদা ইত্যাদি। তাঁর দুর্দান্ত কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ মিলেছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। ২০০৮ সালে মুরাদ পারভেজ পরিচালিত ‘চন্দ্রগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে ময়রা মাসী চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করেন তিনি।  যা তাকে এনে দিয়েছে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ এর সম্মাননা।  


আজ ১৯ জুন, ৭৮ এ পা রেখেছেন এই কিংবদন্তি অভিনেত্রী।  তবে বয়স যে কেবলই একটি সংখ্যামাত্র তা তিনি প্রমাণ করছেন প্রতিনিয়ত।  এই বয়সেও অভিনয় জগতে তিনি নিয়মিত মুখ। সাত বছর আগে স্বামীকে হারিয়েছেন । সন্তানরা সকলেই থাকেন দেশের বাইরে। তাইতো অভিনয়কে আঁকড়ে ধরেই পার করছেন সময়। 


উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নির্মিত 'বঙ্গবন্ধু' সিনেমায়ও দেখা মিলবে তাঁর। নির্মাণাধীন এই সিনেমাটিতে  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মা সায়রা খাতুনের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।