চতুর্থ ধাপে ছিন্নমূল মানুষদের সহায়তা দিলো পাক্ষিক ‘অনন্যা’

চতুর্থ ধাপে ছিন্নমূল মানুষদের সহায়তা দিলো পাক্ষিক ‘অনন্যা’। ছবি: তানভীর আহমেদ
যে এলাকাগুলোতে ত্রাণসামগ্রী খুব একটা পৌঁছায় না তেমন এলাকাগুলোকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে সুষ্ঠুভাবে ৫০ জন দিনমজুর, রিকশাওয়ালাদের পরিবারকে ১ সপ্তাহের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে, সেই সঙ্গে ঘর থেকে বের না হওয়ার প্রতিশ্রুতি নেওয়া হয়েছে।

'অসহায় মানুষের পাশে' নামক প্রজেক্টের মাধ্যমে ত্রাণ তহবিল গড়ে তুলছে পাক্ষিক 'অনন্যা'। আর এই উদ্যোগের আওতায় নিজস্ব অর্থায়নে দুস্থ ও হতদরিদ্রদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। শনিবার চতুর্থ ধাপে পাক্ষিক অনন্যা ৫০টি পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী ও স্যানিটাইজার প্রদান করে। এর আগে তিন ধাপে রাজধানীজুড়ে আরো ১৫০ পরিবারের মধ্যে এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

 

করোনা সংকটের ফলে দুর্ভোগে পড়া মানুষের দিকে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিতেই ত্রাণ তহবিল গঠন ও বিতরণের উদ্যোগ নেয় ''অনন্যা'' । এর প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপ হিসেবে রাজধানীর বেশ কয়েকটি জায়গার মোট ১০০টি পরিবারের মধ্যে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়।

 

 

সেই ধারাবাহিকতায় শনিবার রাজধানীর বনশ্রী, জুরাইন, যাত্রাবাড়ি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ও শাহবাগে আরো ৫০টি পরিবারের হাতে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী তুলে দেয়া হয়।

 

আয়োজকরা জানান, যে এলাকাগুলোতে ত্রাণসামগ্রী খুব একটা পৌঁছায় না তেমন এলাকাগুলোকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে সুষ্ঠুভাবে ৫০ জন দিনমজুর, রিকশাওয়ালাদের পরিবারকে ১ সপ্তাহের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে, সেই সঙ্গে ঘর থেকে বের না হওয়ার প্রতিশ্রুতি নেওয়া হয়েছে।

 

 

আরো জানা যায়, ইতোমধ্যে করোনার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত অন্তত ৫০০ শ্রমজীবী পরিবারের সদস্যদের কাছে খাবার পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। পরবর্তী ধাপে বিতরণের জন্য খাদ্যসামগ্রী কেনার কাজ শুরু হয়েছে। এ কাজে সহযোগিতা করতে অনেকেই নীরবে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

 

যারা এই সংকটকালে পাশে থাকতে আগ্রহী তারা সাহায্য পাঠাতে পারেন

 

বিকাশ নম্বর- ০১৬৮৬৫৯২২৮১

ট্রাস্ট ব্যাংক- একাউন্ট নাম Anannya (অনন্যা)

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট- ০০৩০-০২১০০০৯২৭৯

কাওরানবাজার শাখা