Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বয়স ১১৭, করোনাকে হার মানালেন এক নারী!

বয়স ১১৭। ইউরোপের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ। পাশাপাশি বিশ্বের দ্বিতীয় বয়স্ক ব্যক্তি (জীবিত থাকা) তিনি। এতোসব রেকর্ড ঝুলিতে রেখেও এবার তার ঝুলিতে যোগ করলেন আরো একটি রেকর্ড।  ১১৭ বছর বয়সী হয়েও করোনাকে জয় করার রেকর্ড।  এতো রেকর্ডধারী সেই নারীর নাম লুসিলে র‌্যান্ডন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে তার করোনা আক্রান্তের খবরটি জানা যায়।  ১৬ জানুয়ারি লুসিলে র‌্যান্ডনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। তবে তার মধ্যে কোনও উপসর্গ ছিল না। বর্তমানে করোনা থেকে পুরোপুরি সুস্থ আছেন তিনি। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘আমার যে এটা (কোভিড-১৯) হয়েছে সেটা আমি বুঝতেই পারিনি।’ 

১৯০৪ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন লুসিলে র‌্যান্ডন। ১৯৪৪ সাল থেকে সিস্টার আন্দ্রে নামে পরিচিত হন তিনি। অবসরে যাওয়ার পর থেকে দক্ষিণাঞ্চলীয় ফ্রান্সের তুলোন এলাকার একটি বৃদ্ধাশ্রমে থাকেন এ নারী। অবশ্য, করোনা শনাক্ত হওয়ার পর তিনি আশ্রমের অন্যান্য লোকজনের কাছ থেকে আইসোলেশনে থাকতে শুরু করেন। 

এ প্রসঙ্গে সেন্ট ক্যাথেরিন লেবার বৃদ্ধাশ্রমের মুখপাত্র ডেভিড টাভেলা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আক্রান্ত হওয়ার পরও তিনি বৃদ্ধাশ্রমের অন্যান্য বাসিন্দাদের নিয়ে খুব উদ্বিগ্ন ছিলেন। আগে থেকেই  চোখে দেখতে পান না তিনি। বয়সের ভারে একা একা চলাফেরাও করতে পারেন না। তার নিত্যদিনের সঙ্গী হুইলচেয়ারে। তবে তার বৃদ্ধাশ্রমের মুখপাত্র তাকে অনেকটা সাহসী বলেই পরিচয় দেন।  

আজ ১১ ফেব্রুয়ারি। সাহসী এই নারীর জন্মদিন। ১৯০৪ সালের এমনি এক দিনে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। কেটে গেছে ১১৭ টি বছর। কিন্তু হার মানেনি লড়াকু এই নারী।  প্রকৃতিও যেন চায় তাকে বারবার জিতিয়ে দিতে।  তারই প্রমাণ, ১১৭-তম জন্মদিনের কিছু দিন আগেই করোনাকে জয় করা। বৃদ্ধাশ্রমের অন্যান্য বাসিন্দাদের সঙ্গেই আজকের দিনটি কাটাবেন তিনি। সাহসী এই নারীর জন্য জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ