Skip to content

৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সম্পর্ক কেমন হবে?

সম্পর্ক শব্দটি ক্ষুদ্র হলেও এর মাহাত্ম্য এতোটাই মধুর যে তা একে অপরকে এক অবিচ্ছেদ্য বন্ধনে আবদ্ধ করে। আর একটি সম্পর্ক টিকে থাকে ভালোবাসার এক অদ্ভুত শক্তির মাধ্যমে। সেটা হতে পারে মা-বাবার প্রতি সন্তানের ভালোবাসা, বন্ধুর প্রতি ভালোবাসা কিংবা প্রেমিকের প্রতি প্রেমিকার ভালোবাসা। সবগুলো সম্পর্ক গড়ে ওঠে ভালোবাসার মাধ্যমে। আমরা সর্বদা চাই আমাদের সম্পর্কগুলো হোক মধুর থেকে আরও মধুর। কিন্তু মাঝে মাঝে আমাদের কিছু ভুল ত্রুটির কারণে সম্পর্কে চির ধরে। ফলে আমরা একে অপরের কাছে থেকে দূরে সরে যাই। তখন শুধুমাত্র ভালোবাসার জোরে আমরা আর প্রিয় মানুষের কাছে যেতে পারিনা। আমাদের  সম্পর্কে সৃষ্টি   হয় দূরত্বের।যার ফলে আমাদের  আর ভালো থাকা হয়ে ওঠে না।তবে, চাইলেই সম্ভব আমাদের সম্পর্ক গুলো চিরকাল মধুর রাখা। সম্পর্কের ভীত মজবুত রাখতে আমাদের বিশেষ কিছু দিকের প্রতি নজর দিতে হবে। 

 

 

সততা ও বিশ্বাস

একটি সম্পর্ক বেঁচে থাকে বিশ্বাসের ওপর। যে সম্পর্কে বিশ্বাস ও সততা তাকে না, হাজার চেষ্টা করলেও কখনো সেই সম্পর্ক টিকে রাখা যায় না। তাই কখনো প্রিয় মানুষটির বিশ্বাস ভাঙ্গা যাবে না। সব  আপনার প্রিয় মানুষের বিশ্বাসের মর্যাদা দিন।   

 

গুরুত্ব দেওয়া

একটি সম্পর্কে ভীত মজবুত করতে হলে প্রিয় মানুষটিকে গুরুত্ব দিতে হবে। তার স্বপ্ন ও বিশ্বাসের পূর্ণ মর্যাদা দিতে হবে। আমরা যদি প্রিয়জনের স্বপ্ন ও বিশ্বাস নিয়ে মজা করি তাহলে সে যেমন কষ্ট পাবে তেমনি সেই সম্পর্কেও চিড় ধরে। তাই প্রিয় মানুষটিকে সর্বদা গুরুত্ব দিতে হবে। 

স্বাধীনতা দেওয়া

প্রতিটি সম্পর্কে একে অপরকে নিজস্ব মতামত দেওয়ার জায়গা দিতে হবে। জোর করে নিজের মতামত অন্যের ওপর চাপিয়ে দেওয়া যাবে না। 

ক্ষমা করা

মানুষ মাত্রই ভুল করে। আর তাই অতীতের করা ভুলকে বারবার মনে করে বর্তমানের সুন্দর মুহূর্তগুলো নষ্ট করা যাবে না। এতে সম্পর্ক নড়বড়ে হয়ে যায়। তাই প্রিয় মানুষটির ভুলগুলো ক্ষমা করে নতুন করে পথ চলতে হবে। 

ত্যাগ করা

একটি সম্পর্ক ঠিক তখনি মধুর হয় যখন ছাড় দেওয়ার মানসিকতা থাকে।ছোট ছোট ত্যাগ সম্পর্ক দৃঢ় ও একে অপরের শ্রদ্ধা ও ভরসা আদায় করে। 

যত্ন নেওয়া

আমাদের সম্পর্ক গুলো আইসক্রিমের মতো। আইসক্রিম ঠিক ভাবে রাখতে যেমন একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় রাখতে হয়। তেমনি আমাদের সম্পর্ক ভালো রাখতে একে অপরকে যত্ন করতে হবে। তবেই একটি সম্পর্কের ভীত মজবুত থাকে।

 
এই বিশেষ কিছু দিকগুলোর প্রতি নজর দিলে আমাদের সম্পর্কের ভীত হবে আরও মজবুত আরও মধুর।