Skip to content

২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুধা মূর্তির পোস্ট প্রতিটি নারীর সাহসের লড়াইকে করছে সমর্থন!

যে সমাজে নারীদের দুর্বল ও বোঝা হিসাবে বিবেচনা করা হয় সেখানে সুধা মূর্তি মহিলাদের শক্তি সাহসকে অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। তার মতে, নারীরা কতটা শক্তিশালী তা আমাদের সমাজকে ভুলতে দেওয়া উচিত নয়। অনুপ্রেরণার রোল মডেল সুধা মূর্তি সাম্প্রতিক এক সাক্ষাতকারে বলেন, "আমি বিশ্বাস করি মহিলারা পুরুষের চেয়ে সাহসী।" তিনি আরও বলেন, “নারীদের উচিত তাদের সম্ভাবনাগুলি জানা এবং নিজের উন্নতির জন্য সেগুলোর চর্চা করা। কারণ সে যদি নিজেকে আরও উন্নত করে তুলতে পারে, তবে সমাজও আরো এগিয়ে যাবে। 

 

নারীদের এমন চিন্তাভাবনা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে যে, – "আমি একজন নারী বলেই এই কাজ করতে পারি না, ঐ কাজ করতে পারিনা।" 

 

তিনি এর আগেও নারীদের নিজের উপর বিশ্বাস রাখা নিয়ে কথা বলেন, অনুপ্রেরণা দেন। আগের একটি সাক্ষাতকারে  তিনি নারীদের শক্তিতে বিশ্বাসী হওয়ার জন্য, নারীদের অনুপ্রাণিত করার জন্য একটি গল্প শেয়ার করেন : “প্রায় ১০-১৫ বছর আগে তিনি গণেশ নামে একটি শিশু হাতি দেখতে পেয়ে  যখন তাকে থাপ্পড় দেয়, তখন হাতিটা তার কান দিয়ে ধাক্কা দেয় এবং তিনি প্রায় ২০ ফুট দূরে গিয়ে পড়েন। তখন তিনি গণেশের মা চন্দ্রিকার দিকে তাকাতে দেখতে পায় সে গাছের সাথে বাঁধা ছিল। কিন্তু মা হাতিটা তার শক্তি সম্পর্কে অজ্ঞ ছিল। সে একটি গাছে বাঁধা থেকেই শান্তিপূর্ণভাবে ঘাস খাচ্ছিল। অথচ সে যে পা কাঁপিয়ে বা গাছটি নামিয়ে দিয়ে নিজের শক্তি প্রদর্শন করতে পারে তা সে জানতোই না। তাকে বেঁধে রাখা হয়েছিল বলে সে যা করতে পারেন তা সম্পর্কে সে ছিল অজ্ঞ । প্রায়শই আমাদের এমন মনে হয় আমরা বাঁধা পড়ে আছি, ফলে নারী হিসাবে আমরা  আমাদের  শক্তি এবং সম্ভাবনা গুলো জানিনা। আমরা কেবল শিকল সম্পর্কে চিন্তা করি। শেকল থেকে মুক্ত হয়ে আমরা মনের শক্তি ব্যবহার করি না। ” 

 

তিনি বিশ্বাস করেন যে নারীদের কেবল পুরুষদের সাথে তুলনা করা ঠিক না। তিনি আরও বলেন: “আসলে, নারী হওয়া একটি সুবিধা। তিনি ক্লাসে একমাত্র মেয়ে ছিলেন এবং যা তাকে স্বাবলম্বী করতে সাহায্য করেছিলো।তার কোন বন্ধু বা কারও সাথে সময় কাটানোর ছিল না। ফলে নিজের ক্লাস নোট থেকে সব তিনি নিজেই করতেন। তিনি বলেন, "আমি নিজেই  আমার সেরা সহচর হয়ে উঠেছিলাম।" স্বাবলম্বী হওয়া মূলত কারও উপর নির্ভর না করা এবং যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে শেখায়। " 

 

সুধা মূর্তি নারীদেরকে তাদের যোগ্যতায় বিশ্বাসী করার জন্য অনুপ্রেরণা দিয়ে যান। আর আমরা আশা রাখি মা হাতির মতো, নারীরা তাদের সত্যিকারের শক্তিটি ভুলে যাবে না। আসুন সমাজ আমাদের যে পরিধেয় করে তোলে সেই শৃঙ্খলটি ভাঙতে আত্মবিশ্বাসের শক্তিকে ব্যবহার করি।