Skip to content

১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

করোনার টিকা পেয়ে স্বাস্থ্যকর্মীরা খুশিতে আত্মহারা

করোনাভাইরাসের মহামারির প্রকোপে সারা পৃথিবী। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে সংক্রমণ ও মৃত্যু—দুটিই বেড়ে চলেছে। সর্বোচ্চ মৃত্যু ও আক্রান্তও এই দেশে। করোনার টিকাই যেন জনমনের একমাত্র স্বস্তি। তাই করোনার টিকা পৌঁছালে ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টন শহরের একটি মেডিকেল সেন্টারের স্বাস্থ্যকর্মীরা খুশিতে আত্মহারা হয়েছেন। করোনার টিকা প্রথম চালান পৌঁছানোর খুশিতে তাঁরা একসঙ্গে আয়োজন করে নেচেছেন।

 

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ফাইজার-বায়োএনটেকের আবিষ্কৃত টিকার অনুমোদন দেয়। এরপর গত সোমবার থেকে দেশটিতে টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। যেসব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছে এই টিকার চালান প্রথম যাবে, তারা নিঃসন্দেহে সৌভাগ্যবান।

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এনবিসি বোস্টনের খবরে জানানো হয়েছে, সোমবার ম্যাসাচুসেটসের কিছু হাসপাতাল ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা টিকার প্রথম চালান পায়। বোস্টন মেডিকেল সেন্টার (বিএমসি) ছিল তাদের একটি। এদিন টিকার আগমনে হাসপাতালের কর্মীরা সড়কের পাশে একসঙ্গে নাচেন। মুখে মাস্ক আর সামাজিক দূরত্ব মেনে তাঁদের নাচের ভিডিও গত বৃহস্পতিবার অনলাইনে প্রকাশের পর তা ভাইরাল হয়ে যায়।

 

হাসপাতালের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কেট ওয়ালশ স্বাস্থ্যকর্মীদের সেই ভিডিও টুইট করেন। টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, ‘সম্মুখসারির যোদ্ধাদের জন্য টিকার সমবণ্টন ও সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা একদল লোক উষ্ণ অভ্যর্থনা পেলেন তাঁদের সহকর্মীদের কাছ থেকে। টিকার আগমনে এই উদ্‌যাপন। একটি স্মরণীয় দিন, সেরা ঘটনা।’

 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিও ইতিমধ্যে প্রায় ৪৫ লাখ মানুষ দেখেছে। একজন লিখেছেন, ‘তাঁদের (স্বাস্থ্যকর্মী) জন্য আমি আজ সত্যিই খুব খুশি। আমরা তাঁদের কাছে অনেক বেশি ঋণী। কারণ, তাঁরা আমাদের জন্য অনেক করেছেন।’

 

বোস্টন মেডিকেল সেন্টার প্রথম কোটায় ১ হাজার ৯৫০ ডোজ ফাইজার টিকা পায়। প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে এই টিকা দেওয়া হবে। এই করোনা মহামারী থেকে মুক্তি পাওয়ার আশায় দীর্ঘ সময় পার করেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। এর মধ্য দিয়ে সম্মুখীন হতে হয়েছে অনেক কঠিন মুহর্তের। তাই টিকার আগমনকে নৃত্যের সাথে বরণ করে নিয়েছেন তাঁরা।