Skip to content

২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভয়কে করুন জয়

 

সাফল্য ছিনিয়ে আনতে প্রত্যেককে পেরোতে হয় অনেক বাধাবিপত্তি। আর তার  মধ্যে সবথেকে বেশি জায়গা জুড়ে যে বিষয়টি আমাদের সফলতার পথে বাধা হয়ে দাড়িয়ে আছে তা হলো ভয়। ভয় প্রতিনিয়ত হত্যা করে নতুন নতুন স্বপ্ন,  সম্ভাবনা।  তাই সফলতার উচ্চশিখরে আরোহণ করতে হলে সবার আগে জয় করতে হবে ভয়কে। আর তাই জেনে নিন ভয় করতে জয় করার কিছু মূলমন্ত্র,

 

কারণ খুঁজে বের করুন

 
স্বভাবতই আমাদের প্রত্যেক এর ভয়ের জায়গা এক হয়না।  তাই প্রথমে আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে আপনার ভয়ের কারণ কি। আপনার সফলতার পথে কোন জিনিসটি আপনার দিকে বারংবার চোখ রাঙিয়ে তাকায় যার ভয়ে আপনি পিছপা হয়ে যান। কারণ খুঁজে বের করে সাহস সঞ্চয় করে ভয়কে কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করুন। নিজের কাছে প্রতিজ্ঞা করুন আমাকে এটা করতেই হবে। যত কঠিন পরিস্থিতিই হোক না কেন পরিস্থিতি হাতের নাগালে রাখার চেষ্টা করুন।  

 

মানসিকভাবে শক্তিশালী হোন

 

মানসিকভাবে দুর্বল হলে আপনি কখনোই ভয়ের ঊর্ধ্বে যেতে পারবেন না।  যেকোনো পরিস্থিতিতে আপনাকে মানসিকভাবে শক্ত থাকতে হবে।  মনে রাখবেন যেকোনো পরিস্থিতিতে যেকোনো  বাঁধা আপনাকে দমিয়ে দিতে চাইবে কিন্তু আপনার লক্ষ্য সাফল্যের কেন্দ্রবিন্দু,  যেখানে আপনাকে পৌঁছাতেই হবে।ভয়ে চুপসে গিয়ে নিজেকে সরিয়ে না নিয়ে ভয়ের সাথে লড়াই করতে শিখতে হবে।  

 

আত্মবিশ্বাসী হোন

 

যেকোনো ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে আত্মবিশ্বাসী হওয়াটা সবথেকে বেশি জরুরি। নিজের উপর বিশ্বাসের অভাবেই আপনার মনে বাসা বাধতে পারে নানাবিধ ভয়।  নিজের উপর বিশ্বাস যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতেও আপনাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।  মনে রাখবেন আপনার নিজের ক্ষমতা আপনার যে বিষয়ে ভয় পাচ্ছেন তার থেকে বেশি।  চেষ্টা করলে মানুষ পারে না, এমন কোনও কাজ নেই।  শুধু নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হয়। 

 

খেয়াল রাখুন স্বাস্থ্যেরও

 

ভয়কে জয় করাটা যদিও আপনার মানসিক অবস্থার উপর নির্ভর করে। কিন্তু মানসিক সুস্থতা অনেকটাই নির্ভর করে শারীরিক সুস্থতার উপর । নিয়মিত কায়িক পরিশ্রম খুবই গুরুত্বপূর্ণ, এটা আমাদের শরীরের কার্য ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। নিয়মিত ব্যায়াম করুন, এটা আমাদের শরীর-মন-আত্মাকে সতেজ করে।এছাড়া স্বাস্থ্যকর খাবার, সঠিক ঘুম ইত্যাদিও গুরুত্বপূর্ণ যা আমাদের প্রাণবন্ত হতে শেখায় এবং ভয়কে জয় করে আমাদের সাফল্যের দিকে নিয়ে যায়।

 

সাহায্য চাইতে শিখুন

 

অতীত সর্বদাই অনিশ্চিত।  তবে সেই অনিশ্চিত ভবিষ্যতের সাফল্য নিশ্চিত করতে সর্বদাই বিচক্ষণভাবে চলতে হবে।  আমরা প্রায়শই লজ্জায়,ভয়ে সাহায্য চাইতে পারিনা। যে কারণে বলি দিতে হয় হাজারো স্বপ্ন।  সাহস সঞ্চয় করুন আর কথা বলুন কিন্তু বিব্রত বা তিরস্কারের ভয় পাবেন না, মনে রাখবেন আপনার লক্ষ্য যেকোনো মূল্যে আপনার স্বপ্ন পূরণ করা। আর এখানেও আপনাকে দিতে হবে বিচক্ষণতার পরিচয়,  আগে খুঁজে বের করুন কার থেকে সাহায্য চাওয়া আপনার জন্য উপকারী। যে আপনাকে খারাপ সময়ে আগলে রাখবে আর আপনার দুর্বলতায় শক্তির জোগান দিবে।

 

পূর্বের সফলতাকে স্মরণ করুন

 

নতুন কাজে নতুন বাঁধা সৃষ্টি হলে আপনার অতীতকে স্মরণ করুন। মনে করুন পূর্বের সফলতা অর্জনের জন্যও আপনাকে লড়াই করতে হয়েছিল এবং দিনশেষে আপনিই সফল হয়েছিলেন। ভাবুন তখন যে ভয় আপনার দরজায় হানা দিয়েছিলো, তা আবারও আপনাকে গ্রাস করতে আসছে। এজন্য আরো শক্তভাবে প্রস্তুত হোন। এটা আপনাকে ভয়কে জয় করার শক্তি জোগান দিবে, আপনার আত্মবিশ্বাস কে সুদৃঢ় করবে। 

 

কথায় বলে, 'ডুবে যাওয়ার ভয়ে পানিতে যে না নামে, সে কোনোদিনই সাঁতার শিখতে পারে না।' কাজেই ভয় পেলেও নিজের মনকে নিয়ন্ত্রণ করে ভয়কে জয় করুন। তাহলেই হয়তোবা দেখা মিলবে সফলতা নামের সেই সোনার হরিণের।