Skip to content

২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইউরোপ ও রোমানিয়ায় দেখা গেলো রহস্যময় মনোলিথ!

'মনোলিথ' শব্দটি শোনার পর মাথায় আসছে হাজারো প্রশ্ন তাই তো? কারন এই শব্দটির সাথে খুব বেশি পরিচিতি নই আমরা। সম্প্রতি বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়  মনোলিথ সংক্রান্ত  খবর। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ্ মরুভূমিতে আকস্মিক মনোলিথের দেখা মিলেছে। এরপর হঠাৎ গায়েব হয়ে যায় রহস্যময় এ মনোলিথটি। উটাহ মরুভূমির মতো আরও একটি মনোলিথের দেখা মেলে দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ রোমানিয়ার এক পাহাড়ে। তবে চলুন আগে জেনে নেয়া যাক মনোলিথ কি। এটি এক ধরনের প্রিজম আকৃতির চকচকে ধাতব স্তম্ভ। 

 

 

রোমানিয়ার স্থানীয় গণমাধ্যম ‘জিয়ার পিয়াত্রা নিয়ামথে’ প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী গত ২৬ শে নভেম্বর থেকে রোমানিয়ার বাটকা ডোয়ামনেই পাহাড়ে এ মনোলিথটি দেখা যাচ্ছে। এর উচ্চতা ৯.৮ থেকে ১৩.১ ফুট। রোমানিয়ার যে পাহাড়ে এটি দেখা যাচ্ছে সেটি স্থানীয় অনেক অধিবাসীর কাছে পবিত্র পাহাড় নামে পরিচিত। 

 

আশ্চর্য এ বস্তুটি কোথা থেকে এলো কিংবা কীভাবে এলো তা নিয়ে শুরু হয়ে যায় জল্পনা কল্পনা । অনেকে এ মনোলিথের ছবি তুলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করছেন। ফলে ইন্টারনেটের বদৌলতে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায় মনোলিথের এ ব্যাপারটি।

 

এর আগে গত ১৮ নভেম্বর উটাহ মরুভূমিতে  দেখা গিয়েছিলো ১০ থেকে ১২ ফুটের উচ্চতার মনোলিথটি । জানা যায় ব্রেট হ্যাচিং নামক এক পাইলট সর্বপ্রথম এ মনোলিথটি দেখতে পান, কিন্তু পরবর্তীতে উটাহ মরুভূমির উপকণ্ঠে অবস্থিত ক্যানিয়নল্যান্ডস ন্যাশনাল পার্কে বেড়াতে আসা কিছু দর্শনার্থীর বদৌলতে রহস্যময় এ বস্তুটির কথা চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। রোমানিয়ার মতো সেখানেও এ বস্তুটি সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠছিল। কিন্তু অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে  গত ২৭ নভেম্বর রাতে আচমকা উটাহ মরুভূমি থেকে এ মনোলিথটি উধাও হয়ে যায়। 

 

অনেকে দাবি করেছেন যে মনোলিথ দুইটি আসলে ভিনগ্রহের এলিয়েনদের তৈরি এবং তারাই এ মনোলিথ দুইটির একটিকে উটাহ মরুভূমিতে এবং অন্যটিকে রোমানিয়ার পাহাড়ে স্থাপন করেছে। ক্রমেই এই আশ্চর্য ধাতব চকচকে বস্তুটিকে ঘিরে রহস্য আরো ঘনীভূত হচ্ছে।