Skip to content

২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২৭ বছরের পুরনো ভ্রুন থেকে বিস্ময়কর জন্ম এক কন্যা শিশুর!

মায়ের বয়স ২৮। কিন্তু মেয়ের জন্ম ২৭ বছরের পুরনো ভ্রুন থেকে। এমন বিস্ময়কর ঘটনা ঘটলো টিনা গিবসন নামে এক মার্কিন স্কুল-শিক্ষিকার সন্তান জন্মদানে।  এত পুরনো হিমায়িত ভ্রূণ থেকে মানব শিশু জন্মানোর এটি বিশ্বরেকর্ড।

শিশুটির নাম রাখা হয়েছে মলি গিবসন। গত অক্টোবরে আমেরিকার টেনিসির নক্সভিলে জন্ম নিয়েছে এই শিশু। এর আগে তিন বছর পূর্বে রেকর্ড ছিলো ২৪ বছরের পুরনো ভ্রুন থেকে জন্ম নেয়া তার বড় বোন এর দখলে। ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে জন্ম নেয় গিবসন দম্পতির প্রথম সন্তান।  যার নাম রাখা হয় এমা। আর বড় বোনের রেকর্ড ভাঙার দায়িত্বটা নিলো ছোট বোনই। 

 

 
নক্সভিলে ন্যাশনাল এমব্রয় ডোনেশন সেন্টারে ১৯৯২ সালের অক্টোবরে মলির ভ্রুণ সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিল। টিনা এবং তার স্বামী বেন গিবসন যোগাযোগ করেন ওই সংস্থার সঙ্গে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে টিনা সেই সংরক্ষিত ভ্রুণ থেকে গর্ভবতী হন। মাস খানেক আগে জন্ম দেন এই কন্যা সন্তান।

হিসেব অনুযায়ী  টিনা গিবসনের এক সন্তানের বয়স তিন বছর, আরেক সন্তানের বয়স এক মাস।  তবে তর্কের খাতিরে এদের বয়স ২৪ এবং ২৭ বললেও ভুল হবে না।  তাই এই দিক থেকে দেখতে গেলে দুই মেয়ের থেকে টিনার বয়সের পার্থক্যও খুব একটা বেশি নয়।  তবে এতোসব বিস্ময়কর রেকর্ড নিয়ে খুব একটা মাথা ব্যাথা নেই গিবসন দম্পতির।  তারা আনন্দ উপভোগ করছে পরিবারের নতুন সদস্যকে নিয়ে।