Skip to content

৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নারীর উদ্যোক্তাযাত্রায় সকল সহযোগীতা করছে সরকার

নারী উদ্যোক্তাদের সংগঠন "উইমেন এন্ড ই কমার্স ফোরাম(উই)" এর আয়োজনে দুপুরে ২৪ ও ২৫ শে অক্টোবর, ২০২০ দুদিনব্যাপী অনলাইনে "ওমেন ই-কমার্স এন্টারপ্রেনারশীপ সামিট ২০২০" এর উদ্বোধন গতকাল ২৪ শে অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়েছে। একদম বিনামূল্যে দেশ এবং বিদেশের গুনীজনদের উদ্যোক্তাদের সামনে হাজির করা,  যার মাধ্যমে দেশীয় পণ্যের এক বড় প্রচারণা করার চেষ্টা করছেন এক মিলিয়ন গ্রুপ সদস্যের এই সংগঠন। ২৪ শে অক্টোবর দুপুর উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি হিসেবে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমীন চৌধুরী। 

অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের  প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি।  উদ্বোধনী আয়োজনে  সম্মানীত বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশে ভারতীয় নবনিযুক্ত রাস্ট্রদূত বিক্রম কে দোরাইস্বামী ,  ইউকে তে নিযুক্ত বাংলাদেশী  হাইকমিশনার সৈয়দা মুনিয়া তাসনীম অনলাইনে যুক্ত হয়েছিলেন। 

এসময় উই সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা, এসবি টেক ভেঞ্চারস এর সিইও সোনিয়া বশির কবির, ওমেন ই-কমার্স এন্টারপ্রেনারশীপ সামিটের সহ আয়োজক বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রেসিডেন্ট আরিফুল হাসান অপু, সিল্কক গ্লোবাল এর সিইও সৌম্য বসু।

উই সামিটের দুদিনে দেশের আইসিটি অঙ্গনের নানাগুনীজন সময় দিয়ে উদ্যোক্তাদের ফান্ডরাইজিং, লজিস্টিকস সমর্থন,  বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত নানাধরনের ইস্যু উঠে এসেছে। 

জাতীয় সংসদের স্পিকার বলেন,  "নারীদের এইধরনের কাজ আমার কাছে সত্যিই খুবই প্রশংসনীয়৷ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর  ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরাম যেভাবে কাজ করছে সেটা সত্যিই আমাদের জন্য গর্বের ব্যাপার।" 

প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, "উই এর সকল কাজে আমি সবসময় খেয়াল করি, সমর্থন করি। আপনাদের এই সামিট আমাদের নারী ক্ষমতায়নের আরেকটি মাইলফলক।"

ভারতীয় নবনিযুক্ত রাস্ট্রদূত বিক্রম কে দোরাইস্বামী তার বক্তব্যে বলেন,  "বাংলাদেশ ও ভারত অকৃত্তিম বন্ধু। নারী উদ্যোক্তাদের এই মহাআয়োজনে আপনাদের সাথে যুক্ত হতে পারাটায় আমি আনন্দিত। " ইউকে তে নিযুক্ত বাংলাদেশী  হাইকমিশনার সৈয়দা মুনা তাসনীম বলেন, "আমার দেশের নারীদের এই সংগঠনের কাজের মাধ্যমে আজকে যেই অবস্থায় এসে দাঁড়িয়েছে, এটাকে কাজে লাগিয়ে ভবিষৎতে আরো ভালো কাজের সুযোগ রয়েছে।

উই প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা তার স্বাগত বক্তব্যে এবং সমাপনী বক্তব্যে উই এর মাধ্যমে নারীদের অর্থনৈতিক স্বাবলম্বী হওয়াসহ, উই গ্রুপের নানা বিষয়, সরকারের কাছ থেকে পাওয়া প্রতিনিয়ত সহায়তার কথা জানান। 

উই থেকে  উই উদ্যোক্তাকে তারা সম্মাননা জানাবেন যারা উই এর মাধ্যমে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন। দুদিনের সেশনে উদ্যোক্তাদের প্রয়োজনীয় কয়েকটি ওয়ার্কশপ রাখা হয়েছে।