Skip to content

২০শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সৌদির শুরা কাউন্সিলে প্রথম নারী সহকারী স্পিকার ড. হানান

সৌদি আরবের ইতিহাসে প্রথম নারী হিসেবে শুরা কাউন্সিলের সহকারী স্পিকার পদে নিয়োগ পেয়েছেন ড. হানান বিনতে আবদুর রহিম আল আহমদি। গত রবিবার (১৮ অক্টোবর) সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ এক রাজকীয় নির্দেশনা জারি করে সিনিয়র স্কলারস, শুরা কাউন্সিল ও সুপ্রিম কোর্ট পুনর্গঠন করেন। এতে সৌদি আরবের ইতিহাসে একজন নারী হিসেবে প্রথমবারের মতো শুরা কাউন্সিলের সহকারী স্পিকার হিসেবে নিয়োগ পান ড. হানান আল আহমদি। খবর সৌদি ভিত্তিক আল আরাবিয়ার।

 

শুরা কাউন্সিলে নিয়োগ পেয়ে নেতৃত্বদানের পদাধিকার পাওয়া সৌদি আরবের প্রথম নারী হলেন হানান আল আহমদি। সাত বছর আগে শুরা কাউন্সিলে নিয়োগ পাওয়া সাতজন নারীর অন্যতম ছিলেন তিনি। অর্থনীতি ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় বিশেষজ্ঞ একজন বরেণ্য শিক্ষাবিদ তিনি।

 

সৌদি আরবের ইনস্টিটিউট অব পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের স্বাস্থ্যসেবা পরিচালনা বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন। রিয়াদের ইকোনমিক ফোরামের ট্রাস্টি বোর্ড ও সৌদি ম্যানেজম্যান্ট অ্যাসোসিয়েশন সদস্য তিনি। ইনস্টিটিউট অব পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন থেকে প্রকাশিত গবেষণা জার্নালের সম্পাদনা পরিষদের সদস্যও তিনি। এ ছাড়া দীর্ঘকাল ধরে সৌদি আরবের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে আসছেন তিনি।

 

ড. হানান আল আহমদি ১৯৮৬ সালে সৌদি আরবের কিং আবদুল আজিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতিতে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লুজিয়ানার টুলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাস্থ্যসেবা প্রশাসন বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৯৫ সালে পিটার্সবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জনস্বাস্থ্য বিষয়ের ওপর ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।

 

২০১৪ সালে শুরা কাউন্সিলে প্রথম সৌদি নারী হিসেবে নিয়োগ পেয়ে ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নকে ড. হানান আহমদি বলেছিলেন, ‘খবরটি শুনে আমি অভিভূত হয়েছি। কারণ এটি বেশ বিস্ময়করও বটে। এমন ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আমার মধ্যে বেশ দায়িত্বশীল মনোভাব তৈরি করেছে। তা ছাড়া সমাজের সার্বিক উন্নয়নে নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে গিয়ে ভিন্ন ধরনের নতুন সুযোগ তৈরি হওয়ায় খুবই উৎসাহবোধ করছি।’

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ