Skip to content

৫ই মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ২২শে বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেনার বেশে পদ্মভূষণ নিলেন ধোনি

২ এপ্রিল। দিনটি প্রত্যেক ভারতীয়র কাছে অবিস্মরণীয়। ২০১১ সালের এই দিনে শ্রীলংকাকে নাস্তানাবুদ করে দ্বিতীয়বার ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ঘুচেছিল ২৮ বছরের বিশ্বজয়ের খরা। সাত বছর পর দিনটি ফের অন্য মাত্রা পেল। গতকাল প্রেসিডেন্ট রামনাথ কোবিন্দের হাত থেকে পদ্মভূষণ নিয়েছেন ক্যাপ্টেনকুল।

দিল্লিতে প্রেসিডেন্ট ভবনে ধোনির হাতে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা তুলে দেন রামনাথ। এ সময় সেনার উর্দি পরে ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসির পুরস্কার গ্রহণ ব্যাপক আলোড়ন তুলেছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসেবে আবির্ভূত হন মাহি। প্রেসিডেন্টের কাছে সেনার বেশে এগিয়ে যান। এর পর স্যালুট জানিয়ে পদ্মভূষণ গ্রহণ করেন।

ধোনির স্বদেশপ্রেমের কথা কমবেশি সবারই জানা। ২২ গজে তা প্রায়ই দেখা যায়। ক্রিকেটের জার্সির পর তার সবচেয়ে প্রিয় ভারতীয় সেনার পোশাক। তাই মাঝেমধ্যে টিম ইন্ডিয়ার অনুশীলনেও নেমে পড়েন জওয়ানের পোশাক পরে। প্রেসিডেন্ট ভবনেও অধিনায়কের সেই প্রেম ধরা পড়ল।

ক্রিকেটে একগুচ্ছ সাফল্যের জন্য পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত হলেন ধোনি। এই দিনে দেশকে ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের উৎসবে ভাসান তিনি। ২০০৭ সালে তার হাত ধরেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে টিম ইন্ডিয়া। দেশকে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিও জেতান এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। ওর নেতৃত্বেই ২০০৯ সালে টেস্ট ব়্যাংকিংয়ের সিংহাসনে আরোহন করে ভারত।

ইতিমধ্যে দেশের ক্রিকেটে অনন্য অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ একাধিক পুরস্কার পেয়েছেন ধোনি। ২০০৭ সালে রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি। ২০০৯ সালে পান দেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ সম্মাননা পদ্মশ্রী। ২০০৮ ও ২০০৯ সালে পান আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের খেতাব। এবার তার মুকুটে যোগ হল নয়া পালক।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ