Skip to content

১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খাওয়ার পর পরেই যেসব কাজ এড়িয়ে চলবেন

শরীর সুস্থ রাখতে খাবার আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গসমূহের কাজ ঠিকমত পরিচালনা করতে ও শক্তি উৎপাদনে সহায়তা করে খাবার। তবে মনে রাখতে হবে সব কিছুরই নিদিষ্ট নিয়ম রয়েছে। খাবারের পর কিছু অভ্যাস অনেকেরই থাকতে পারে, যেগুলো শরীরের জন্য ক্ষতিকারক হিসেবে কাজ করে। আর এসব অভ্যাস পরিহার না করলে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন করতে হতে পারে।

তাই সুরক্ষিত থাকতে ও খাবারের সঠিক উপকার পেতে খাওয়া শেষ করেই যা করা যাবে না-

ঘুমানো
খাওয়া শেষ করেই ঘুমানো শরীরের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। বিশেষজ্ঞের মতে, খাওয়ার পর ঘুমালে পাকস্থলীতে উৎপন্ন পাচক রস উঠে যায় এবং এর ফলে বুকজ্বালা হতে পারে। আর সেটি পুরো হজম প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করে।

ফল খাওয়া
খাবার শেষ করেই ফল খেলে তা শরীরের ওপরে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। পুষ্টিবিদের মতে, খাবার শেষ করেই ফল খেলে তা শোষণকে সীমিত করে। এর ফলে তা হজমের সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে এবং আপনি যে খাবারটি গ্রহণ করছেন তার পুষ্টির মানও পরিবর্তন করতে পারে।

ধূমপান
ধূমপান এমনিতেই শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। এটি হচ্ছে একমাত্র পণ্য যেটির মোড়কের গায়ে লেখা থাকে এর ক্ষতির কথা। খাবার শেষ করেই ধূমপান করলে সেটির ক্ষতির পরিমাণ আরও ১০ গুণ বেড়ে যায়। সিগারেটে কার্সিনোজেন থাকে, যা ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোমকে আরও খারাপ করে দিতে পারে এবং এর ফলে আলসারেটিভ কোলাইটিস হতে পারে।

গোসল
খাওয়ার পর পরই গোসল করা উচিত নয়। এটি শরীরের জন্য আরও ক্ষতিকারক হতে পারে। খাবার খাওয়ার পর পরই গোসল করলে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং রক্ত ত্বকে ছুটে যায়। এর ফলে হজমের সমস্যা হতে পারে। কারণ হজমের জন্য প্রচুর শক্তির প্রয়োজন হয়, আর রক্ত ত্বকে ছড়িয়ে পড়ার কারণে সেখানেও অনেক শক্তি ক্ষয় হয়।

ব্যায়াম
খাবারের ঠিক পরেই ব্যায়াম করলে তা আপনার হজম প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করতে পারে। এমনকি এটি করলে বমিভাব, পেট ফুলে যাওয়া ও পেট খারাপ হওয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

পানি পান
খাবার শেষেই সবচেয়ে পরিচিত একটি অভ্যাস হচ্ছে পানি পান করা। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে খাবারের পর পরই পানি পান করলে তা শরীরে ক্ষতি করে। খাবার শেষ করেই পানি পান করলে তা পেটে এনজাইম এবং রসের নিঃসরণ হ্রাস করে। এর ফলে অ্যাসিডিটি ও পেট ফোলাভাব হতে পারে, যা হজমকে কঠিন করে তোলে। খাওয়ার অন্তত আধা ঘণ্টা আগে পানি পান করতে হবে। আর খাবার শেষেও পানি পান করার জন্য এক ঘণ্টা অপেক্ষা করা উচিত।

চা ও কফি পান
অনেকেই খাবারের পর পরই চা বা কফি খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু এটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক খারাপ। চা ও কফিতে কিছু ফেনোলিক যৌগ রয়েছে, যা আয়রনের শোষণকে সীমিত করে। তাই খাবার খাওয়ার অন্তত এক ঘণ্টা পর্যন্ত চা ও কফি পান করা এড়ানো উচিত।

অনন্যা/এসএএস