Skip to content

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নারীর একটু অবাধ্য হওয়া উচিত ছিলো

নারীর একটু অবাধ্য হওয়া উচিত ছিলো

নারীর হয়তো একটু অবাধ্য হওয়া উচিত ছিলো। নিজের প্রয়োজনের তাগিদে নিজেকে আরো বেশি নাছোড়বান্দা হিসেবে তৈরি করে নেয়ার দরকার ছিলো নারীর। 


নারীর হয়তো আরো কঠিন, আরো জেদি হওয়া দরকার ছিলো ।একটু স্বার্থপর হওয়া উচিত ছিলো নিজের জন্য । নিজের ভবিষ্যতের জন্য। অন্য নারীর ভবিষ্যতের জন্য । 

নিজের জন্য । নিজের ভবিষ্যতের জন্য। অন্য নারীর ভবিষ্যতের জন্য । 


নারীর হয়তো নিজের সীমানার বাইরেও আরো বাইরে যাওয়া দরকার ছিলো । কেউ বাঁধা দিতে আসলে তাকে দেয়া দরকার ছিলো উচিত জবাব। 

কেউ বাঁধা দিতে আসলে তাকে দেয়া দরকার ছিলো উচিত জবাব। 


নারীর নিজের একটা জীবন থাকা হয়তো ছিলো খুবই প্রয়োজন। দিন বদলের জন্য। নারীর প্রতি মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি বদলানোর জন্য । 


নারীর হয়তো নিজেকে নিয়ে আশেপাশের মন্তব্য নিয়ে এত না ভেবে নিজেকে তৈরি করার পেছনে সময় দেয়া উচিত ছিলো। 

নিজেকে তৈরি করার পেছনে সময় দেয়া উচিত ছিলো। 


নারীর নিজের আত্মবিশ্বাসকে আরো বেশী দৃঢ় করা উচিত ছিলো। গায়ের চামড়া যেনো আরো পুরু হয় সেই প্রস্তুতি নেয়াটা আবশ্যিক ছিলো। 


নারীর আরেকটু অবাধ্য হওয়ার দরকার ছিলো। নারীর কণ্ঠ আরো বিস্তৃত হওয়ার প্রয়োজন ছিলো। 


নারীর কণ্ঠ আরো বিস্তৃত হওয়ার প্রয়োজন ছিলো। 


নিজের প্যাশন এবং নিজের কাজকেই একান্ত নিষ্ঠার সাথে পালন করা দরকার ছিলো নারীর। লোক যতকিছুই বলুক।

তবুও নারীর যদি মনে হয় সে দেশ বিদেশ ঘুরে বেড়াবে, আরো পড়বে , আরো শিখবে তাহলে তাই করা উচিত ছিলো। কারো থেকে অনুমতি নেয়ার জন্য অপেক্ষা না করে নিজের যা মন বলে তাই ই করা উচিত ছিলো নারীর। 

নিজের যা মন বলে তাই ই করা উচিত ছিলো নারীর। 


নারীর একটু অবাধ্য হওয়া উচিত ছিলো।  নিজের জন্য ।

MT