Skip to content

২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভালো আম চিনবেন কিভাবে

আমের মৌসুম শেষ হতে চললো। বাজারে সর্বত্রই এখন বিভিন্ন জাতের আম পাওয়া যাচ্ছে। বাহারি সব আম খেতে বেশ মজার৷ কিন্তু এই আমে প্রতিনিয়তই মেশানো হচ্ছে নানারকমের রাসায়নিক পদার্থ। যা স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি করে। তাই বাজারে আম কিনতে গিয়ে ক্রেতাদের পরতে হয় বিপাকে৷ আম কেনার পর যেন ঠকে যেতে না হয়, এইজন্য ভালো আম দেখে কিনতে হবে। কিছু বিষয় লক্ষ করলেই ভালো আম কেনা সম্ভব। চলুন তবে জেনে নেই কিভাবে চিনবেন ভালো আম।

দীর্ঘদিন পচনের হাত থেকে রক্ষার জন্য আমে ফরমালিন ব্যবহার করা হয়। যা খেলে আমাদের মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি হওয়ার সম্ভাবনা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে লক্ষ করুন, আপনি যে আম কিনতে চাচ্ছেন, সে আমে মাছি বসে কি না৷ কারণ ফরমালিন যুক্ত আমে কখনো মাছি বসে না। যদি মাছি না বসে তবে সেই আম কেনা থেকে বিরত থাকুন।

কার্বাইড বা অন্য রাসায়নিক পদার্থ মেশানো আম দেখতে সুন্দর ও দাগহীন হয়। কারণ পাকার আগেই এই আমগুলো গাছ থেকে পেরে রাসায়নিক পদার্থ দেওয়া হয়। ফলে এতে দাগ পরে না। কিন্তু গাছপাকা আম কখনো দাগহীন হয়না। তাই আম কেনার পূর্বে এই বিষয়গুলো খেয়াল করুন।

রাসায়নিক পদার্থ মিশ্রিত আমে কখনো গন্ধ হয় না। হলেও সেটা হয় খুব বাজে গন্ধ। তাই আম কেনার আগে নাকের সামনে ঘ্রাণ নিয়ে কিনুন। ভালো আম হলে অবশ্যই সেটা থেকে মিষ্টি গন্ধ আসবে। এছাড়া, গাছপাকা আমে একটা সাদাটে ভাব থাকবে। কিন্তু ভেজাল মিশ্রিত আম দেখতে সুন্দর ও চকচকে হবে।

আমের বিভিন্ন জাত থাকলেও জাতভেদে রয়েছে নিজস্ব গুণাগুণ। যেমন হিমসাগর আম পাকলেও দেখতে সবুজ থাকে। কিন্তু এতে যখন রাসায়নিক পদার্থের ব্যবহার হয়, তখন এটা দেখতে মসৃণ ও এর স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়। তবে আম ক্রয়ের আগে এই বিষয়গুলোর দিকে নজর রাখলে ঠকে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেকটা কমে৷

অনন্যা/এসএএস