Skip to content

২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গরমে বরফ ধরে রাখবে ত্বকের উজ্জ্বলতা

টানা কয়েকদিনের মানুষের জীবন প্রায় অতিষ্ঠ। আর এই গরমের সময় ত্বকে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। অনেকের ত্বকে ব্রণ ওঠে। আবার রোদে পুড়ে ত্বকের উজ্জ্বলতাও নষ্ট হয়ে যায়। গরমকালে ত্বকের হারানো উজ্জ্বলতা আবার ফিরিয়ে আনতে বরফ বেশ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। বরফ বা আইসকিউবের ব্যবহারে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা থেকে দিতে পারে সমাধান।

বরফে থাকা বিশুদ্ধ পানি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য যেমন উপকারী ঠিক তেমনি, ত্বকের জন্য এটি অনেক বেশি উপকারী। শরীর থেকে সব টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে পানি। আবার আইসকিউবও ঠিক একই কাজ করে ও আমাদের ত্বককে পরিষ্কার করে।

ত্বকের উপকারিতায় বরফ:

ডার্ক সার্কেল থেকে মুক্তি
নিয়মিত মুখে বরফ ব্যবহার করলে ডার্ক সার্কেল কমায়। তবে, এ ক্ষেত্রে গোলাপজল এবং শসার রস দিয়ে তৈরি আইসকিউব ব্যবহার করলে সবচেয়ে বেশি সুফল পাওয়া যায়। এটি বানাতে কিছু গোলাপজল ফুটিয়ে তার মাঝে শসার রস মেশাতে হবে। মিশ্রণটি ডিপ ফ্রিজে রেখে বরফ বানানোর পর সেগুলো চোখের নিচে ও মুখের ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। কিছু দিন ব্যাবহারে পাওয়া যাবে সুফল।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়
উজ্জ্বল ত্বক পেতে প্রতিদিন আইসকিউব দিয়ে পুরো মুখ এবং গলায় বৃত্তাকারে ম্যাসাজ করতে হবে। এটি ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে এবং ত্বককে উজ্জ্বল করবে।

চোখের ফোলাভাব দূর করে
অনেক সময় চোখের নিচে অতিরিক্ত তরল যাওয়ার কারণে চোখ ফোলা দেখায়। এ ফোলাভাব দূর করতে আইসকিউব অনেক কার্যকারী। চোখের চারদিকে আইসকিউব দিয়ে বৃত্তাকারভাবে ম্যাসাজ করলে চোখের ফোলা ভাব কমে যায়।


রিংকেলস বা মুখের চামড়া কুঁচকে যাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে বরফ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিয়মিত মুখে বরফ দিয়ে ম্যাসাজ করলে মুখের চামড়া কুঁচকে যাওয়ার সমস্যা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আসে এবং নতুন করে রিঙ্কেলস দেখা দেয় না।

ত্বকের লালচে ভাব এবং প্রদাহ কমায়
অনেক সময় গরম ও রোদের তাপের কারণে ত্বক সানবার্ন হয়ে হয়ে যায়। এমনটি হলে সে জায়গাগুলোতে বরফ দিয়ে ম্যাসাজ করলে, অনেক ভালো কাজ করে। রোদের কারণে ত্বক লালচে ভাব এবং প্রদাহ কমাতে নিয়মিত ত্বকে বরফ দিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে।

ঘামাচি, চুলকানি ও ব্রণ কমায়
গরমের মাঝে ঘামাচি, চুলকানি এবং ব্রণ হওয়াটা অনেকটা স্বাভাবিক বিষয়। এগুলোর জন্য আইসকিউব ম্যাজিকের মতোই কাজ করে। এটি ব্রণের ফোলা ভাব ও ব্যথা কমাতে সাহায্য করে এবং ঘামাচি, চুলকানিও রোধ করে।

স্কিন পরিষ্কার করে
ত্বক এক্সফোলিয়েট করার জন্য কেমিক্যালযুক্ত প্রোডাক্ট ব্যবহার করা উচিত নয়। বরং এ ক্ষেত্রে বাড়িতেই দুধ দিয়ে তৈরি আইসকিউব বানিয়ে তা ব্যবহার করা যেতে পারে। দুধে ল্যাকটিক অ্যাসিড থাকার কারণে তা ডেড স্কিন পরিষ্কার করে, ত্বক হয় উজ্জ্বল ও মসৃণ।

অনন্যা/এসএএস