Skip to content

২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দীর্ঘস্থায়ী করুন পারফিউমের সুগন্ধ

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহারের প্রয়োজনীয় কিছু জিনিসের মধ্যে অন্যতম একটি পারফিউম। ভালো মিষ্টি সুগন্ধের পারফিউম কিনতে মোটা অঙ্কের অর্থ খরচ করতেও পিছপা হন না অনেকে। কিন্তু, পারফিউম ব্যবহারের পর হতাশ হয়ে যান।

পারফিউম ব্যবহারের কিছুক্ষণ পরই সুগন্ধ আর থাকে না। তাই আপনাদের সেই হতাশা দূর করতে দীর্ঘ সময় ধরে কিভাবে পারফিউমের সুগন্ধ বজায় রাখা যায়, তার কিছু কৌশল জেনে নেয়া যাক-

নির্দিষ্ট কিছু জায়গায় ব্যবহার করুন:

সুগন্ধি ব্যবহার করার নির্দিষ্ট কিছু জায়গা আছে, সেসব জায়গায় সুগন্ধি ব্যবহার করলে অনেকক্ষণ সুঘ্রাণ থেকে যায়। এক্ষেত্রে চিবুকের নিচে গলার দুপাশে এবং বুকের দুপাশেও বডি স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। শরীরের পালস পয়েন্টগুলো হচ্ছে পারফিউম দেওয়ার জন্য আদর্শ জায়গা। কব্জি, কনুই ছাড়াও হাঁটুর পেছনে, পায়ের গোড়ালি, নাভির কাছে, কানের পেছনে পারফিউম লাগালে সেই ঘ্রাণ স্থায়ী হয় বেশ কিছুটা সময়।

গোসলের পর:

গোসলের ঠিক পর পরই পারফিউম ব্যবহার করলে এর সুগন্ধ সাধারণ সময়ের থেকে অনেক বেশি সময় পর্যন্ত স্থায়ী হয়। তাই গোসলের পর পারফিউম বা বডি স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে সুগন্ধ দীর্ঘ সময় স্থায়ী হবে।

ব্যবহারের আগে কিছু কাজ:

ত্বকে সুগন্ধ আটকে থাকার কিছু ব্যবস্থা তো নিতেই হবে। এক্ষেত্রে কিছু কাজ পারফিউম ব্যবহারের আগেই করতে হবে। তা হলো, হাতের কব্জি বা ত্বকে ভেসলিন লাগিয়ে নিতে হবে । এতে আর্দ্র ত্বকে সুগন্ধ আটকে থাকবে দীর্ঘক্ষণ

ব্যবহারের পরে:

পারফিউম ব্যবহারের পর ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিলে সুগন্ধ স্থায়ী হয়। তাই পারফিউম ব্যবহারের পর ত্বকের যে অংশে পারফিউম বা সুগন্ধি লাগিয়েছেন তার ওপর ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। আর অবশ্যই মনে রাখতে হবে ময়েশ্চারাইজার হতে হবে সুগন্ধবীহীন।

কাপড়ের ওপরে নয়:

কাপড়ের ওপরে সুগন্ধ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়না। তাই শরীরের পালস পয়েন্টগুলোতে পারফিউম ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে আরো একটি ভয় থেকে আপনি বাঁচতে পারেন। তা হলো, অনেক সময় কাপড়ের উপরে স্প্রে ব্যবহার করলে তা থেকে দাগ পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

অনন্যা/জেএজে