Skip to content

৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেকআপ সরঞ্জামগুলো পরিষ্কার রাখছেন তো?

প্রতিদিন সুষম খাবার, পর্যাপ্ত পানি, ঘুম, শরীরচর্চা সবই চলছে তারপরও মুখে ব্রণ রেশ এসব সমস্যা সারছেই না? কিন্তু ভেবে দেখেছেন কি এজন্য দায়ী কী হতে পারে? আপনার মেকআপ করা ব্রাশ বা অন্য সরঞ্জাম দায়ী নয়তো? হতেও পারে দীর্ঘদিন মেকআপ সরঞ্জাম পরিষ্কার করা হয়নি। তাই এমন ত্বকের সমস্যা লেগেই আছে। আর তাই এসব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়ম করে মেকআপ সরঞ্জামগুলো পরিষ্কার করুন। আসুন জেনে নেই কিভাবে পরিষ্কার করবেন-

মেকআপ ব্রাশ
মেকআপ করার জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জিনিস হলো মেকআপ ব্রাশ। আর এই মেকআপ ব্রাশই সবচেয়ে বেশি ত্বকে লাগানো হয় তাই এটিকে সবথেকে বেশি পরিষ্কার রাখা জরুরি। কেননা নিয়মিত মেকআপ করার কারণে বিভিন্ন প্রসাধনী লেগে থেকে এগুলোতে ব্যাকটেরিয়া জন্মে। যা থেকে মুখে নানান সমস্যা দেখা দেয়। তাই ঘন ঘন পরিষ্কার করা প্রয়োজন। ফাউন্ডেশন ব্রাশ প্রত্যেকবার ব্যবহার করার পর ধুয়ে ফেলুন। চোখও প্রচণ্ড স্পর্শকাতর। তাই লাইনার ব্রাশও ধুতে হবে নিয়মিত। গ্লিটার মেকআপ ব্যবহার করলে সাবান জলে ব্রাশ বা ব্লেন্ডার ভিজিয়ে রাখুন।

ব্রাশ পরিষ্কার করার স্প্রে পাওয়া যায়। সেগুলো দিয়ে পরিষ্কার করতে পারেন। তবে খুব সাবধানে পরিষ্কার করলে ব্রাশের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা৷ ব্লো ড্রাই না করে এমনি হাওয়ায় শুকিয়ে নিন। মেকআপ ব্রাশ পরিষ্কার থাকলে পরবর্তীতে মেকআপ করতেও সুবিধা হবে এবং ব্যাকটেরিয়া ত্বককে স্পর্শ করতে পারবে না।

ব্লো ড্রায়ার
নারীর সৌন্দর্যের বড় অংশজুড়ে রয়েছে চুল। চুল শুকানোর যন্ত্রও যে পরিষ্কার করতে হয়, তা অনেকেই জানেন না। কিন্তু নোংরা জমে জমে যন্ত্রটির মুখ বন্ধ হয়ে আসে। তাতে যন্ত্রটি খুব তাড়াতাড়ি বেশি মাত্রায় গরম হয়ে যায়। এটি পরিষ্কার করতে প্রথমে একটা সরু কাঠির ডগায় তুলো দিয়ে গ্রিডের মধ্যে থেকে নোংরা বার করে নিন। তারপর ভিজে কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

চিরুনি
চুলের যত্নে বেশি ব্যবহৃত হয় চিরুনি। চিরুনি কয়েক দিন পরপরই পরিষ্কার করা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে গরম পানিতে আধ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে টুথব্রাশ দিয়ে ময়লা ছাড়িয়ে নিন।

অনন্যা/এসএএস

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ