Skip to content

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দেশের ইতিহাসে প্রথম নারী অর্থ সচিব

বর্তমানে শ্রমবাজারে নারীদের বিচরণ অনেকটা বাড়লেও কর্মক্ষেত্রে নারীদের প্রতি বৈষম্য খুব একটা কমেনি। বিশেষ করে পদোন্নতির দিকে চোখ রাখলে দেখতে পাবেন ওপরের দিকে যতই চোখ পড়বে নারীর সংখ্যা ততই কমতে থাকে। তবু উচ্চপদে যে নারীদের দেখা যাচ্ছে না, তা নয়। আনুষ্ঠানিক খাত কিংবা অনানুষ্ঠানিক খাত সবক্ষেত্রেই নারীরা উচ্চপদগুলোতে নিজেদের জায়গা করে নিচ্ছে। এবার দেশের প্রথম নারী অর্থ সচিব হিসেবে নাম লিখিয়েছেন ফাতিমা ইয়াসমিন।

দেশের ইতিহাসে প্রথমবার অর্থসচিবের মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পেলেন একজন নারী। এই পদে নিয়োগপ্রাপ্ত ফাতিমা ইয়াসমিন এতদিন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব হিসেবে দায়িত্ব-রত আছেন। ফাতিমা ইয়াসমিনকে সিনিয়র সচিব হিসেবে পদোন্নতি দিয়ে বৃহস্পতিবার (১৬জুন) তাকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের সচিব নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিনকে অর্থ সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হলো। আগামী ১১ জুলাই থেকে অর্থ সচিব হিসেবে তার নিয়োগ কার্যকর হবে। ফাতিমা ইয়াসমিন বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের নবম ব্যাচের কর্মকর্তা।

২০২০ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি ইআরডি-সচিব হিসেবে যোগদান করেন তিনি। ইআরডিরও প্রথম নারী সচিব ছিলেন ফাতিমা ইয়াসমিন। তার জায়গায় নতুন ইআরডি সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য শরিফা খান। বিসিএস নবম ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মচারী ফাতিমা ইয়াসমিন ইআরডি সচিব হওয়ার আগে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ) থেকে ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে উন্নয়ন অর্থনীতিতেও স্নাতকোত্তর করেছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের রাটগার্স ইউনিভার্সিটিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের হুবার্ট এইচ. হামফ্রে পাবলিক পলিসি ফেলো ছিলেন। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের জন এফ কেনেডি স্কুল অফ গভর্নমেন্ট থেকে লিডিং সাকসেসফুল প্রোগ্রামের এক্সিকিউটিভ প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেছেন তিনি।

ফাতিমা ইয়াসমিনের অর্থ সচিব পদে নিয়োগের বিষয়টি আশার আলো দেখাচ্ছে নারী অধিকার নিয়ে, কর্মক্ষেত্রে নারীর অবস্থান নিয়ে।

অনন্যা/জেএজে