Skip to content

২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পুদিনা পাতায় ত্বকের যত্ন

ত্বকে কিছু হলে আমাদের মাথা খারাপ হয়ে যায় কী করা যায়, আর করা যায় না, এই ভেবে। তবে ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক উপাদানের কোনো জুড়ি নেই। যেসব প্রসাধনী আমরা ব্যবহার করি, সেগুলোতেও ব্যবহার করা হয় প্রাকৃতিক উপাদান। তার মধ্যে পুদিনা পাতা একটি কার্যকরী উপাদান। ক্লিনজার, টোনার ও ময়েশ্চারাইজার হিসেবে এটি দারুণ উপযোগী। আসুন জেনে নেই আর কিভাবে কোন কোন কাজে পুদিনা পাতা ব্যবহার করা যায়।

পুদিনা পাতায় থাকে স্যালিসিলিক এসিড ও ভিটামিন-এ। যা ত্বকের সব উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করে তৈলাক্ত ভাব ঠিক রাখে। পুদিনা পাতা ব্রণের সমস্যা দূর করতে ব্যাপক কার্যকরী। পুদিনা পাতার পেস্ট করে তা ব্রণের ওপর লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন।

পুদিনা পাতা কাটা বা ঘা দ্রুত শুকাতে সাহায্য করে। পুদিনা পাতায় থাকে প্রদাহবিরোধী উপাদান। তাই পুদিনা পাতার রস নিয়ে কাটা জায়গায় দিলে দ্রুত তা শুকিয়ে যায়।

এছাড়া, পুদিনা পাতা টোনার হিসেবে দুর্দান্ত কাজ করে। ত্বকের পোরস থেকে ময়লা দূর করে ত্বককে হাইড্রেট রাখে। পুদিনা পাতা প্যাক তৈরি করে মুখে ২০-২৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এতে ত্বকের রিংকেলের সমস্যা দূর হয়। এমনকি পুদিনা পাতা রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে।

পুদিনা পাতার অ্যান্টি অক্সিডেন্ট চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। চোখের নিচের কালো অংশে পুদিনা পাতার পেস্ট দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে কালো দাগ দূর হবে। ত্বককে ভালো রাখতে তাই প্রাকৃতিক উপাদানই ব্যবহার করার চেষ্টা করা উচিত। এতে ত্বকের কোনো ক্ষতি হবে না, ত্বকও ভালো থাকবে।

অনন্যা/এসএএস