Skip to content

১লা মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ১৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরমে আরামদায়ক যেসব পোশাক

গরম আবহাওয়ায় অতিষ্ঠ জনজীবন। এই তীব্র গরমে আরও অস্বস্তির বিষয় হতে পারে পোশাক। সব ধরনের পোশাক অবশ্যই আরামদায়ক নয়। আবার আমরা অনেক সময় বুঝতেও পারি না, কোন ধরনের পোশাক আমাদের জন্য আরামদায়ক, কোন ধরনের পোশাক আরামদায়ক নয়। তাই এ বিষয়ে একটু চোখ বোলানো যাক।

কাপড়ের ধরন:

সুতি: গরমে সবচেয়ে আরামদায়ক সুতি কাপড়ের পোশাক। এটি অত্যন্ত হালকা, উচ্চশোষণ ও বায়ুচলাচল ক্ষমতাসম্পন্ন। তাই গরমে অনেকটাই আরামদায়ক এই পোশাক। পোশাক নোংরা হলে সহজে পরিষ্কারও করতে পারবেন। বিভিন্ন ধরনের, রঙের সুতি পোশাক আপনি যেকোনো জায়গায় পরে যেতে পারবেন। হোক সেটা অফিস কিংবা কোনো অনুষ্ঠান।

সিল্ক: সুতি কাপড়ের আরামের কথা অনেকের জানা থাকলেও, অনেকর ধারণা সিল্কের কাপড় বোধহয় গরমে অস্বস্তি দিতে পারে। কিন্তু এ ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল। এটি সুতি কাপড়ের মতো অত্যন্ত হালকা ওজনের। সিল্ক গরমের জন্য অত্যন্ত আরামদায়ক একটি পোশাক। তাই এই গরমে চোখ বন্ধ করে সহায়তা নিতে পারেন সিল্কের।

খাদি: বর্তমান সময় খাদি কাপড়ের জনপ্রিয়তা অনেকটা বেড়েছে। খাদি কাপড় দেখতে যেমন ক্লাসি লাগে তেমনই গরমে বেশ আরামদায়কও বটে। এ কাপড়ের বিভিন্ন ডিজাইনিং কুর্তি কিংবা কামিজ পরতে পারেন। যাদের শাড়ি পড়া দরকার হবে তারা খাদি কাপড়ের শাড়ি পরলে গরম থেকে অনেকটা রক্ষা পাওয়া যাবে।

কাপড়ের রং:

গরমকালে হালকা রঙের পোশাক পরাই ভালো। হালকা রঙের পোশাক পরলে গরম কম লাগে। এক্ষেত্রে অবশ্য সাদা সাদা রঙের পোশাক পরলে গরম কম লাগতে পারে। কারণ, সূর্য থেকে বিকিরণ পদ্ধতিতে তাপ পৃথিবীতে এসে পৌঁছায়। কিন্তু সব বস্তুর তাপ বিকিরণ শোষণ করার ক্ষমতা সমান নয়। সাদা রঙের তাপ বিকিরণ শোষণ করার ক্ষমতা সবচেয়ে কম। এই কারণেই সাদা রঙের পোশাক কম উত্তপ্ত হয় এবং গরম কম লাগে। আর কালো রঙের পোশাকে গরম সবচেয়ে বেশি লাগে তাই কালো রঙের পোশাক থেকে গরমের কয়েকদিন দূরে থাকার চেষ্টা করুন।

অনন্যা/জেএজে

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ