Skip to content

২২শে মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরমে স্বস্তির এসি কেনার আগে

অতিষ্ঠ গরমের বিষয়ে আগে থেকেই সতর্ক করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। এই গরমে এখন আর ফ্যান নয়, সবাই কিনতে চাচ্ছেন এসি। এসি একসময় উচ্চবিলাসিতা হলেও এখন প্রায় অনেকের জন্যই প্রয়োজনীয়তা হয়ে পড়েছে। কিন্তু এসি তো আর চাইলেই কিনে ফেলা যায় না। এসি কেনার সময়েও অনেক ভাবতে হয়। একটি পণ্য কেনার পর তা কতটা বিদ্যুৎ খরচ করছে আর কতটা ভালো আউটপুট দিচ্ছে সেটিও ভাবনায় রাখা জরুরি।

এসি কেনার সময় প্রথমেই ব্র্যান্ডের কথা ভাবতে হবে। ব্র্যান্ড জরুরি অবশ্যই। আরও জরুরি এর সার্ভিস সেন্টার ও আফটারসেলস সার্ভিস কতটা ভালো। চলুন জেনে নেই কি কি বিষয় খেয়াল রেখে এসি কিনবেন:

প্রথমেই ভাবুন উইন্ডো এসি না কি স্প্লিট এসি
প্রথমে জেনে নিতে হবে আপনি স্প্লিট এসি নাকি ইউন্ডো এসি কিনবেন। প্রশ্ন হচ্ছে, উইন্ডো আর স্প্লিট এসি আসলে কী? সহজ ভাষায় স্প্লিট এসিতে কম্প্রেসার ঘরের বাইরে থাকে। এ ধরনের এসির সুবিধা হলো মেশিনের আওয়াজ শোনা যায় না। এই আরামের কিছু সমস্যা রয়েছে যেমন, কম্প্রেসার বসানোর জন্য ঘরের দেওয়াল ভাঙতে হয়। ভাড়া বাসা হলে তো আর এই ঝামেলা পোহানো সম্ভব হয় না। নিজের বাড়ি হলে তাও কিছুটা সুবিধা মেলে। অন্যদিকে উইন্ডো এসি লাগাতে গেলে একটা জানালা বন্ধ হয়ে যায়। এ ধরনের এসি বন্ধ থাকলে ঘরে আলো-বাতাস ঢোকার সম্ভবনা অনেকটাই কমে যাবে। বাজেটের কথা বললে উইন্ডো এসির দাম স্প্লিট এসির থেকে বেশ খানিকটা কম।

ঘরের আকৃতি দেখুন
কত টনের এসি কিনবেন এসব ভাবনা কিন্তু শুরুতেই নয়। প্রথমে ভাবুন কত স্কয়ার ফিট আপনার বাসা। ঘরের আয়তন সর্বোচ্চ ১৪০ স্কয়ার ফিট পর্যন্ত হলে এক টন ক্ষমতাসম্পন্ন এসি যথেষ্ট। এখন আপনার ঘরের আকার ১৪০ থেকে ১৯৬ স্কয়ার ফিটের মধ্যে হলে দেড় টন কার্যক্ষমতার এসি দরকার হবে। ঘরে যদি জানালা থাকে তবে পছন্দ অনুসারে ভালো ব্র্যান্ড দেখে ‘উইন্ডো এসি’ কিনে নিতে পারেন। ঘরের আকার বড় কিন্তু কোনো জানালা নেই তবে স্প্লিট এসি কিনতে হবে। মূলত বসার ঘর কিংবা অফিসের বড় রুমে ব্যবহারের জন্য স্প্লিট এসি কেনা হয়।

ইনভার্টারের ব্যাপারে কী করা যায়
অবশ্যই ইনভার্টারসহ এসি কেনা ভালো। ইনভার্টার বিদ্যুৎ খরচ কমায়। এজন্য আজকাল ইনভার্টার এসির চাহিদা এত বেশি। কমপ্রেসারকে প্রয়োজন অনুসারে ব্যবহার করাও সহজ হয় আর বিদ্যুৎ খরচ কিছুটা বাঁচে।

এসিতে জরুরি কিছু লাগবেই
ব্লোয়ার ফ্যান এসিতে থাকতেই হবে। এই অংশটিই আপনার বাড়িতে বাতাস ছড়িয়ে দেয়। ব্লোয়ার ফ্যানের আয়োজন যত বড় হবে তত বেশি বাতাস পাওয়া যাবে। আরেকটি উপাদান যা এসিতে লাগবেই তা হলো কনডেনসার কয়েল যা ঠান্ডা করার গতি বাড়ায়। এসিতে কনডেন্সার কয়েলগুলো যাতে তাপ বিনিময় করতে পারে এবং এরমাঝে ক্ষয়রোধী বৈশিষ্ট্য থাকে দেখে নিন। ক্যাপাসিটর আমাদের শেষ মাস্ট উপাদান যা সার্কিট ফেইল কিংবা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে আগুন লাগা থেকে বাঁচায়।

ব্র্যান্ড নিয়ে ভাবনা থাকে তো?
তাহলে ব্রান্ড কোনটি ভালো? বাজারে জনপ্রিয় কিছু বিদেশি ব্রান্ড আছে। তাদের আফটার সেলস ভালো হলে অবশ্যই নেবেন। দেশি ব্রান্ডও আছে। তবে মানের বিষয় নিয়ে অনেকে ভেবে ভালো ব্রান্ডে যান। কিন্তু সেগুলোর অনেকগুলোর সার্ভিস সেন্টার দূরে থাকলে বিপাকে পড়তে হয়। আগে জেনে নিন যে তারা আপনাকে সার্ভিস কিভাবে দেবে। দেশি ব্রান্ডে কিনলে খরচ একটু কম হয় বটে। সেক্ষেত্রে তাদের সার্ভিস রিভিউ দেখুন। পণ্যটি সামনাসামনি দেখুন। তারপর কিনুন।

এসি কেনার পর সার্ভিসের ঝামেলা এড়াতে
এই গরমে আচমকা এসি বা ফ্যানের সমস্যা অনেকেরই দেখা দিতে পারে। যেহেতু এই যন্ত্র ব্যবহার করা হয় বেশি তাই এসি নষ্ট হলে চিন্তাও হয় অনেক বেশি। কিন্তু এসি ঠিক করাবেন কীভাবে? মূল সমস্যা দেখা দেয় যখন আপনি যে ব্র্যান্ডের এসি কিনেছেন তার সার্ভিস সেন্টার যদি হয় অনেক দূরে। সেটা নাহয় হলো। তাহলে কি মেকানিকের খোঁজ করবেন?
মেকানিকের সাহায্য নেওয়ার একটাই সমস্যা। তাদের দক্ষতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া কঠিন। আবার অনেক সময় সার্ভিস সেন্টার কাছে থাকলেও তারা এত ব্যস্ত থাকে যে আপনাকে আফটারসেলস সার্ভিস ভালো দিতে পারে না পুরোপুরি। এক্ষেত্রে আপনার কী করার আছে? বাড়ির আশপাশে নির্ভরযোগ্য কোনো দোকান না থাকলে সমাধান কী? কিছু অনলাইন সার্ভিস রয়েছে যা আপনাকে নিশ্চিত ভালো সার্ভিস দেবে। এক্ষেত্রে আপনি তাদের শরণাপন্ন হতে পারেন।

আজকের ডিল
আজকের ডিল অনেক ধরনের পরিষেবাই দেয়। ফ্যান আর এসি রিপেয়ারও তার একটি অংশ। আজকের ডিলের ওয়েবসাইট থেকেই আপনি সহজে তাদের সার্ভিস এক্সেস করতে পারবেন। আবার ওদের অ্যাপও রয়েছে যেখানে সহজেই আলাদা সার্ভিস হিসেবে পেয়ে যাবেন এসি রিপেয়ার সার্ভিস। আজকের ডিলে আলাদা একটি সেকশনই রয়েছে। সেখানে সব গুরুত্বপূর্ণ ডিটেইল দেওয়া রয়েছে। মূলত তাদের দক্ষ মেকানিক আপনার অর্ডারের পর যোগাযোগ করে সার্ভিস দিয়ে যাবে। এক্ষেত্রে কিছু ডিসকাউন্টও পেতে পারেন।

পশরাবিডি
এসি বা ফ্যান রিপেয়ারের ক্ষেত্রে আরেকটি ভালো মাধ্যম হতে পারে পশরাবিডি। পশরাবিডি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় হোম সার্ভিস। এই সার্ভিস সম্প্রতি তাদের কাজের জন্য বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। পশরাবিডির নিজস্ব কোনো অ্যাপ না থাকলেও আপনি তাদের ওয়েবসাইটে লগইন করেই সার্ভিস নিতে পারবেন। পশরাবিডির সব সার্ভিস সবিস্তারে ওয়েবসাইটেই উল্লেখ করা আছে। তাই আপনাকে বাড়তি দুশ্চিন্তা করতে হবে না যে সার্ভিস কেমন হবে। আপনার যে সমাধান দরকার তার ভিত্তিতেই আপনি তাদের সার্ভিস নিতে পারবেন। খরচ সম্পর্কেও জানতে পারবেন। পশরাবিডির পেমেন্ট মেথডও অনেক থাকায় ঘরে বসেই সব করে নিতে পারবেন। এমএফএস কিংবা ব্যাংক পেমেন্ট সবই তাদের আছে। হোম সার্ভিসে তারা যা যা প্ল্যান অফার করে সবই জানতে পারবেন।

সিঙ্গারের এসি সার্ভিস
সিঙ্গার পণ্য ব্যবহার করলে তো আরো ভালো। সিঙ্গারের নিজস্ব অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি সহজেই তাদের এসি সার্ভিস নিতে পারবেন। এই এসি সার্ভিস পাওয়া জটিল কিছু না। বরং সহজ। অ্যাপের মাধ্যমে পুরোপুরি অর্ডার করা না গেলেও আপনি সার্ভিস সেন্টারের সঙ্গে যোগাযোগ করে সমস্যা বলতে পারবেন। এমনকি অনলাইন চ্যাটিং অপশনেও সমাধান পাবেন।

সেবা এক্স ওয়াই জেড
সেবা এক্স ওয়াই জেড আশপাশে এসি রিপেয়ারের জন্য সবচেয়ে ভালো মাধ্যম। মোবাইলে তাদের অ্যাপ নামালেই কাজটি সহজ হয়ে যাবে। আপনাকে বাড়তি দুশ্চিন্তা করতে হবে না। সেবার অ্যাপে অনেক ধরনের সার্ভিস রয়েছে। এসি রিপেয়ারে আপনি সার্ভিসের জন্য খুঁজলে তারাই আপনাকে বিস্তারিত জেনে নেওয়ার চেষ্টা করবে। আপনি তাদের কাছে বিস্তারিত পরে বলবেন। Sheba.xyz অ্যাপ ডাউনলোড করুন, তারপর নিজের একটা প্রোফাইল খুলুন। তারপর যথাক্রমে এসি সার্ভিস সিলেক্ট করলে আপনাকে দেখানো হবে টেকনিশিয়ানদের প্রোফাইল। আপনি সবার যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও লোকেশন দেখে বিবেচনা করে যাকে ইচ্ছা হয় তাকে বাছাই করবেন। তারপর নির্ধারিত দিন তারিখে আপনার সুবিধামতো সময়ে অভিজ্ঞ ও দক্ষ সার্ভিসম্যান চলে আসবে আপনার বাসায়।

দেবিকা দে

Debika Dey Srishty Junior Sub-Editor, Fortnightly Anannya

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ